জেলা প্রশাসকের আন্তরিকতায়, আহত ওসমান উন্নত চিকিৎসার পথে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ যশোরের জেলা প্রশাসক ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন বিবেক’র যৌথ তৎপরতাই উন্নত চিকিৎসা প্রদানের লক্ষে ঢাকার পথে বসুন্দিয়া ট্রেন দূর্ঘটনায় ওসমান আলী(২২)। স্বোচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠন বিবেকের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ওবাইদুল ইসলাম অভির ফেজবুকে আহত ওসমান আলীর ২৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও মুহুর্তে ভাইরাল হয়। এই ভিডিওর কমেন্টে বিবেকের সাধারন সম্পাদক সালাহউদ্দিন সাগর যশোরের জেলা প্রশাসক জনাব তমিজুল ইসলাম খানের প্রতি আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। বিষয়টি জেলা প্রশাসকের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি ওই আহত ব্যক্তির চিকিৎসার ভার নিজের কাঁধে নেন।

যার ফলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসা কুড়াচ্ছেন ডিসি। রবিবার যশোর সদরের বসুন্দিয়ায় ট্রেন দূর্ঘটনায় আহত হন ওসমান আলী। পরে স্থানীদের সহযোগিতায় গুরুতর আহত অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে তাকে হাসপাতালের বাথরুমের সামনে রেখে দেওয়া হয় অজ্ঞাতনামা হিসাবে। হঠাৎ বিষয়টি নজরে আসে সেচ্ছাসেবী সংগঠন বিবেকের সদস্যদের ।

পরে তাৎক্ষনিক তারা অক্সিজেন, ঔষধ, চিকিৎসা সহ সকল দায়িত্ব তুলে নেন । তখনো তার পরিচয় পাওয়া যায়নি। বিশেষ করে ঘটনাটি সকলের সামনে আনেন সংগঠনের দপ্তর সম্পাদক এ্যান্টনি দাস অপু এবং সেখানে তৎখানিক উপস্থিত হয় যুগ্ম সম্পাদক মো: কামাল হোসেন, প্রচার সম্পাদক সাহারুল ইসলাম ফারদিন ও ফোনে যোগাযোগ রক্ষা করেছেন সাংগঠনিক সম্পাদক এম এইচ উজ্জল। এছাড়া সংগঠনের সকল সদস্যরা মানুষিক সহায়তা করেছেন। এরপরে আহত ওসমান আলীর হাসপাতালের মেঝেতে থাকা অবস্থার ২৫ সেকেন্ডের ভিডিওটি ভাইরাল হয় ।

জেলা প্রশাসক বিষয়টি তাৎক্ষনিক গুরুত্ব দিয়ে হাসপালাতের সুপারের সাথে কথা বলে দ্রুত তার উন্নত চিকিৎসা প্রদানের জন্য ঢাকায় নেওয়ার সকল দায়িত্ব নিজের কাধে তুলে নেন। এর মধ্যে সংগঠনটি ব্যপক তৎপরতা চালিয়ে ট্রেন দূর্ঘটনায় আহত ব্যাক্তির পরিচয় সনাক্ত করে পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে তাদের হাসপাতালে আসতে বলে। আহত ওসমান ও তার পরিবারের এক সদস্য বর্তমানে ঢাকার পথে রওনা হয়েছে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো: তমিজুল ইসলাম খান জানান, তার উন্নত চিকিৎসা প্রদানের জন্য আহত ওসমান এখন ঢাকার পথে আছে। তার সকল চিকিৎসা সকল দায়ভার আমরা গ্রহন করেছি।