বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সের মাধ্যমে ফাইজারের আরেও ৬০ লাখ ডোজ কোভিড-১৯ টিকা অনুদান দিয়েছে যক্তরাষ্ট্র। আমেরিকান জনগণের পক্ষ থেকে দেওয়া ফাইজার টিকার সর্বশেষ এই অনুদানের ফলে বাংলাদেশকে এযাবতকালে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের দেওয়া মোট টিকা উপহারের সংখ্যা সাড়ে চার কোটি ডোজ ছাড়াল এবং আরেও লাখ লাখ ডোজ টিকা বাংলাদেশে আসার পথে রয়েছে বলে ঢাকায় অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের চার্জ ডি অ্যাফেয়ার্স হেলেন লাফেভ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র সরকার বাংলাদেশে টিকা অনুদানের একাধিক চালান পাঠানোর মাধ্যমে যতো বেশি সম্ভব বাংলাদেশি নাগরিকদের টিকা দেওয়া এবং দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের কাছে জীবনরক্ষাকারী টিকা পৌঁছে দেওয়ার জন্য বাংলাদেশের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে চলেছে।’

আরও সংবাদ পড়ুন >>আগামী নির্বাচনেও জনগণ আমাদেরই ভোট দেবে: প্রধানমন্ত্রী

টিকা ডোজ অনুদান দেওয়া ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র মহামারি প্রতিরোধ কার্যক্রম শক্তিশালী করতে বাংলাদেশের জাতীয় কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের ৭,০০০ এর বেশি স্বাস্থ্যসেবাদানকারীকে টিকাদান কার্যক্রম উপযুক্তভাবে ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি কোল্ড চেইন পদ্ধতি মেনে সংরক্ষণ ও পরিবহনের উপর প্রশিক্ষণ দিয়েছে। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র ইউএসএআইডি, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগ, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এবং যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের মাধ্যমে কোভিড-সংশ্লিষ্ট উন্নয়ন ও মানবিক সহায়তা হিসেবে বাংলাদেশে ১২১ মিলিয়ন ডলার বা ১ হাজার ৪০ কোটি টাকারও বেশি সহায়তা করেছে।

এই সহায়তা মানুষের জীবন বাঁচিয়েছে এবং কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা প্রদান এবং পরীক্ষা করার ও মনিটরিংয়ের সামর্থ্য জোরদার করেছে, রোগের ব্যবস্থাপনা এবং সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের চর্চাগুলো শক্তিশালী করেছে এবং সাপ্লাই চেইন ও লজিস্টিক ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির উন্নয়ন ঘটিয়েছে।

এছাড়াও, যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা সম্মুখসারির কর্মীদের সুরক্ষা প্রদান করছে এবং সংক্রমণ থেকে কীভাবে নিজেদেরকে আরো ভালভাবে রক্ষা করা যায় সে সম্পর্কে জনসাধারণের জ্ঞান বাড়িয়েছে।
সময়েরআলো