‘রাজাকারের উত্তরসূরি নিপুনকে বয়কট করুন’ : মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ

ঝিকরগাছা সংবাদদাতা:  যশোরের ঝিকরগাছা পৌর নির্বাচনে রাজাকারের উত্তরসূরিকে বয়কটের দাবিতে মানববন্ধন করেছে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ। মঙ্গলবার ঝিকরগাছা বাসস্ট্যান্ডে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।
মানববন্ধনে সংসদের সদস্যরা বিভিন্ন ধরনের প্লাকার্ড বহন করে। এসব প্লাকার্ডে লেখা ছিল ‘রাজাকারের উত্তরসূরি নিপুনকে বয়কট করুন’, ‘রাজাকারের পেতাত্মা পাকিস্তানে চলে যা’, ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলায় রাজাকারের ঠাঁই নাই’, ‘একাত্তরের হাতিয়ার গর্জে ওঠো আরেকবার’।
ঘণ্টাব্যাপী মানবন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান, বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়। পরে একটি মিছিল যশোর—বেনাপোল মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে।
মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. আব্দুল কাদের আজাদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দার রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের যুগ্ম—আহ্বায়ক শাওন রেজা খোকা, উপজেলা সভাপতি বিল্লাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শামীম হোসেন, মিরাজ হোসেন, রুকসানা খাতুন প্রমুখ।
মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল বলেন, স্বাধীনতার মার্কা নৌকা। বিজয়ের মার্কা নৌকা। এ নৌকা মার্কার পরিবর্তে স্বাধীনতা বিরোধী কোনো মানুষকে ঝিকরগাছাবাসী ভোট দিবে না।
ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা বলেন, নির্বাচনে মেয়র পদে স্বাধীনতা বিরোধী আব্দুস সামাদের দৌহিত্র ইমরান হাসান সামাদকে বয়কট করুন। তার দাদা ছিলেন পিস কমিটির সভাপতি। পাকিস্তানের পেতাত্মাদের এ দেশে ঠাঁই নেই।
ইমরান হাসান সামাদ বলেন, মানববন্ধনের বিষয়ে শুনেছি। তাদের দাবি অযৌক্তিক। আমার দাদা রাজাকার ছিলেন না। বাবা তো প্রশ্নেই উঠে না। আর আমার জন্ম স্বাধীনতা যুদ্ধের ১০ বছর পর।