যশোরের রামনগরে নৗেকার কাণ্ডারি হতে চান শেখ ইমামুল কবির

নিজস্ব প্রতিবেদক,timevision24.com

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যশোর সদর উপজেলার রামনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নৗেকার কাণ্ডারি হতে চান শেখ ইমামুল কবির। এ লক্ষ্যে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের এই সাংগঠনিক সম্পাদক।

স্থানীয়রা জানান, এক সময়ে বিএনপি জামাতের ঘাটি হিসেবে পরিচিত রামনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রাজনীতি প্রসারে যাদের অবদান রয়েছে তাদের একজন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শেখ ইমামুল কবির। ছাত্র জীবনে সরাসরি সামনে থেকে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। বার বার কারাবরণসহ একাধিক মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলার শিকার হয়েছেন।

আরো সংবাদ পড়ুন- ঝিকরগাছায় নবাগত ওসির সঙ্গে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

এদিকে তৃণমূল থেকে উঠে আসা শেখ ইমামুল কবিরকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ তাকে মনোনয়ন দিবে বলে দাবি করেছেন তার সমর্থকরা।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ক্লিন ইমেজ, সৎ-যোগ্য ও শিক্ষিত চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান শেখ ইমামুল কবিরকে দলীয় মনোনয়ন তথা নৌকা প্রতীক দিলে জয়লাভ করবেন বলে মত স্থানীয়দের।

রামনগর রাজারহাটের মৃত শেখ ইদ্রিস আলীর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ ইমামুল কবির ১৯৯৪ সালে দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নকালে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯৬ সালে এইচএসসিতে অধ্যায়নকালে উপশহর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক, ১৯৯৮ সালে অনার্সে অধ্যায়নকালে যশোর সরকারি সিটি কলেজ ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি, ২০০২ সালে সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য, একই বছর সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা যুগ্ম-আহ্বায়ক, ২০০৪ সালে সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এবং বর্তমানে যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়াও ২০১১ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রামনগর ৩নং ওয়ার্ড থেকে সর্বাধিক ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন এবং ইউপি সদস্যদের ভোটে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

২০১৬ সালে জেলা পরিষদ নির্বাচনে সাতটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ৯নং ওয়ার্ডে নির্বাচন করে ৪২-৪২ ভোটে ড্র করে লটারিতে ফলাফল নিষ্পত্তি হয়। রামনগর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নামেজ সরদার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির তিন বার সভাপতি ইমামুল কবির। তিনি রামনগর অগ্রণী যুব সংঘের সভাপতি, যশোর বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের নির্বাহী সদস্য, যশোর সদর হাসপাতাল রোগী কল্যাণ সমিতির দাতা সদস্য, যশোর চেম্বার অব কর্মাসের সদস্য, যশোর ইনস্টিটিউটের সদস্যের দায়িত্ব পালন করছেন।

সম্প্রতি ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি শেষ করেছেন।

রামনগর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হিসাবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ সময় সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য স্বাধীনতা স্বর্ণপদক, ন্যান্সেন ম্যান্ডেলা পদক, মাদার তেরেসা পদক, মাইকেল পদকে ভূষিত হন।

শেখ ইমামুল কবিরের ঘনিষ্ঠজনেরা জানিয়েছেন, ২০০৩ সালে বিএনপি জামায়াত চার দলীয় জোটের অপারেশন ক্লিনহার্টে গ্রেফতার হয়ে দীর্ঘ কারাবাস, ১/১১ এর সময়ে ডিবি পুলিশ বিনা মামলায় গ্রেফতার, ডিটেনশন খাটা ছাড়াও বিভিন্ন মামলা হামলার শিকার হয়েও বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে দলের সামনে থেকে ভূমিকা রাখাসহ তৃণমূল নেতা-কর্মীর সঙ্গে যোগাযোগ ও ক্লিন ইমেজের কারণে মনোনয়নের দিক দিয়ে কিছুটা এগিয়ে রয়েছে বলে মন্তব্য।

আলাপকালে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ইমামুল কবির বলেন, বরাবর অবহেলিত রামনগর ইউনিয়নের রাস্তা ঘাট, ড্রেন প্রতিষ্ঠানের প্রসার সংস্কার চিহ্নিত সমস্যার সমাধানসহ সকল উন্নয়নমূলক কাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আমি বিশ্বাস করি, তারুণ্যের জয়জয়কার। ওরা মেধাবী সমাজের বড় অংশ জুড়ে অংশগ্রহণমূলক শক্ত অবস্থানে। আমিও তাদের কাতারের একজন। নবীন প্রবীণকে সঙ্গে নিয়ে একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন ডিজিটাল রামনগর ইউনিয়ন গড়তে চাই।