ঝিকরগাছায় কপোতাক্ষ নদের ওপর নির্মিত সেতু পরিদর্শনে ঊর্ধ্বতন প্রতিনিধিদল

ঝিকরগাছা(যশোর)প্রতিনিধি:

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ঝিকরগাছায় কপোতাক্ষ নদের ওপর সরকারি বিধিমালা লঙ্ঘন করে নির্মিত নিচু সেতু পরিদর্শন করেছেন সরকারের ঊর্ধ্বতন প্রতিনিধিদল। বৃহস্পতিবার প্রতিনিধিদল সেতু পরিদর্শন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং জনগণের সাথে মতবিনিময় করেন।

এদিন দুপুরে পানিসারা ফুল প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্রে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) ডাক্তার নাসির উদ্দীন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল মালেক ও জাকির হোসেন।
জেলা প্রশাসক তজিমুল ইসলাম খাঁনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, পৌরমেয়র মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, কপোতাক্ষ বাঁচাও আন্দোলন কমিটির প্রধান উপদেষ্টা ইকবাল কবীর জাহিদ, আন্দোলন কমিটির ঝিকরগাছা উপজেলা আহ্বায়ক আব্দুর রহিম, যশোর নাগরিক অধিকার আন্দোলন কমিটির আহ্বায়ক মাস্টার নুর জালাল, ঝিকরগাছা ব্রিজ বাস্তবায়ন আন্দোলন কমিটির আহ্বায়ক আশরাফুজ্জামান বাবু, সাহিত্যক হোসেনউদ্দীন হোসেন, ঝিকরগাছা বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সামছুর রহমান, উপাধ্যক্ষ ইলিয়াস উদ্দিন, আমানুল কাদির টুল্লু, বাপার সদস্য মহিদুল হক খান, বিআইডব্লিউটিএর খুলনার যুগ্ম পরিচালক আশরাফ হোসেন।
উপস্থিত ছিলেন কপোতাক্ষ বাঁচাও আন্দোলন কমিটির আহ্বায়ক অনিল বিশ্বাস, ঝিকরগাছা কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান কেটি প্রমুখ।
মতবিনিময় সভায় স্থানীয়দের পক্ষ থেকে সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী ব্রিজ নির্মাণ, কপোতাক্ষ নদকে অবৈধ দখলমুক্ত, ঝিকরগাছা শহরকে রক্ষা করতে হাজিরালি থেকে কীর্তিপুর পর্যন্ত উড়াল সেতু নির্মাণ এবং ব্রিজ নির্মাণের অনিয়মের সাথে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান বক্তারা।
উল্লেখ্য, জাইকার অর্থায়নে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ঝিকরগাছায় সড়ক ও জনপথ ছয় লেনের দুইটি সেতু নির্মাণ করছে। যার মধ্যে একটি নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। নির্মিত সেতুর নিচু হওয়ায় নৌপথ বন্ধ হয়। এতে এলাকাবাসী ফুঁসে উঠেছেন।