নজরুল ,নজরুল : চৈতালী মুখার্জী কণা

নজরুল ,নজরুল
চৈতালী মুখার্জী (কণা )
নজরুল নজরুল ,
দুই বাংলার বুকে তুমি আজও সেই বুলবুল |
চুরুলিয়া থেকে ঢাকার পথ দিয়েছো কবি পাড়ি |
বুকে ছিলো প্রেম ,মুখে ছিলো সুধা ,বিদ্রোহী হাতে
লেখনীর স্বরুপে সাম্যের তরবারি |
খুন দিয়ে খুন সম্পদ হলো শব্দের ভান্ডারে ,
মোল্লা ,কাজী ,পুরুত ,
মুখোশ তুমি একটানে দিলে ছিঁড়ে |
নীরব বাণীতে ,নিভৃতে গোপনে সৃষ্টি তোমার
আপনমনে ,
গড়েছো যত আপন খেলায় বিরাট শিশু আনমনে |
দুখের রাতে একলা পথে হাতে নিয়ে ব্রিটিশ ব্যাটন –
আপন ভাইয়ের রক্তপাতে, অন্তর রোশ ধারাপাতে ,
অগ্নিবীণায় উঠলো বেজে বিদ্রোহী ওই তোমার কলম |
হারে ,রে ,রে রে রে আমায়
রাখবি ধরে কে রে ?
সেই সেদিনে সুরের ভেলায় ভাসালে যে সন্ধ্যা বেলায় |
ঘুমিয়ে গেলো যেদিন নীরব শ্রান্ত কোলে বুলবুল |
বুলবুল হয়ে সেইদিনই তুমি ভাসিয়ে দিলে দুকূল |
আজও কোনো সন্ধ্যাকালে তোমার সুরে তুফান তুলে ,
লক্ষ্য বুকের পাঁজর খোঁজে হারিয়ে যাওয়া বুলবুল |
নোবেল তুমি পাওনি কবি , পায়না কোনো বিদ্রোহী |
তোমার আসন শহীদ বেদী ,লক্ষ্য বুকের পাঁজর ভেদী |
সিংহাসনে তোমার ছবি ,যেথায় মাথা নোওয়ায় রবী |
আজও তোমার জন্মদিনে
গঙ্গা ,পদ্মা চরণ ধোয়ায় তোমার সুরের দোলা দিয়ে
তোমার ভাটিয়ালীর গানে |
আজও চাঁদের মনে পড়ে ,নীরব শেষ পদচারন |
বলছে বুঝি স্মিত হেসে |
“আমি চিরতরে দূরে চলে যাবো তবু –
আমারে দেবোনা ভুলিতে “