বেনাপোলে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

যশোর অফিসঃ নেশার টাকা না পেয়ে ৮ মাসের গর্ভবতী স্ত্রী রুমা খাতুন (৩৫) নামে এক গৃহবধুকে শ্বাস রোধ করে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার দিন গত রাত্রে বেনাপোল পোর্ট থানা শিবনাথপুর বারোপোতা গ্রামে নিহতের শশুর বাড়ি এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

রুমা বেনাপোল পোর্ট থানার শিবনাথপুর বারোপোতা গ্রামের সাফিউল রহমানের ছেলে আরিফুল ইসলাম টুটুল এর স্ত্রী ও একই থানার ইছাপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়ে।

স্থানীয়রা বলেন, নেশার টাকা না পেয়ে রাত্রে তাকে কোন এক সময় শ্বাস রোধ করে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। মেয়েটি ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

রুমার চাচাতো ভাই শামিম হোসেন বলেন, মাঝে মধ্যে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ঝাটি হতো। শিবনাথপুর বারোপোতা গ্রামের প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী মোমিন মেম্বার এর ভাতিজা আরিফুল ইসলাম ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য হত্যার শিকার রুমার পরিবারকে হুমকি ধামকি দিচ্ছে।

বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মামুন খান জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে বুঝা যাবে এটা হত্যা নাকি আত্নহত্যা।