বারৈয়ারহাট মৎস্য আড়তে পৌর মেয়র খোকনের ঝটিকা অভিযান

মো:মজিবুলহক(জোরারগঞ্জ)মীরসরাই: জেলিযুক্ত চিংড়ি ও রং মেশানো বিভিন্ন মাছ জব্দ করতে গভীর রাতে মৎস্য আড়তে অভিযান চালিয়েছে মীরসরাই উপজেলার বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন।

জানা যায়ঃ চট্টগ্রামের ৭০ভাগ মাছের জোগান আসে মীরসরাইয়ের মুহুরী প্রজেক্ট মৎস্য এলাকা থেকে। আর এই মাছের অধিকাংশই ক্রয়-বিক্রয়ের অন্যতম হাট বারইয়ারহাট মৎস্য আড়ত। বারইয়ারহাট মৎস্য আড়তে রয়েছে মাছ বেচাকেনার প্রায় একশ প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় চিংড়িতে জেলি ও অন্য মাছে রং মেশানোর অভিযোগ উঠে আসছে। সম্প্রতি চিংড়িতে জেলি মেশানো মাছের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তা বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকনের নজরে আসে। এরপর তিনি সোমবার ভোররাতে প্রতিটি মৎস্য আড়তে ঝটিকা অভিযান চালান।

আরও জানা যায়ঃ উত্তর চট্টগ্রামের সবচে বড় মাছের আড়ত বারইয়ারহাটে রাত ৩টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ৩০কেজি রং মিশ্রিত রিকশা মাছ ও জেলিযুক্ত ১২কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ করেন মেয়র। এরপর আগামীতে এই ধরণের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে স্থানীয় মাছের আড়ৎদারদের সতর্ক করা হয়।

বারইয়ারহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম খোকন বলেনঃ দীর্ঘদিন যাবত বারইয়ারহাট মৎস্য আড়তে ক্ষতিকর রং মিশ্রিত বিভিন্ন প্রকারের মাছ ও জেলিযুক্ত চিংড়ি বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। তাই সোমবার ভোররাতে বারইয়ারহাট মৎস্য আড়তে অভিযান চালাই। এসময় ৩০ কেজি রং মিশ্রিত রিকশা মাছ ও জেলিযুক্ত ১২কেজি চিংড়ি মাছ জব্দ করি। পরবর্তীতে পৌর আঙ্গিনায় মাছগুলো ধ্বংস করা হয়। মৎস্য আড়তে যারা এসব কর্মকাণ্ডে জড়িত রয়েছে তাদের সতর্ক করি যাতে ভবিষ্যতে এমন কর্মকাণ্ড আর না করে।