সকলে সম্মিলিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলা গড়ব

বেনাপোলে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্রাচার্য এমপি……..

শাহাবুদ্দিন আহমেদ,বেনাপোল প্রতিনিধি: শোষণমুক্ত একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন লড়াই সংগ্রাম করেছেন। ৭১ পূর্ববর্তী বাঙালি জাতির উপর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর দমন-পীড়ন, নির্যাতন নীপিঢ়ন রুখে দিয়ে তিনি এদেশের স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। অসংখ্যবার কারাভোগ বরণসহ দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধ করে ৩০ লক্ষ শহীদের বুকের তাজা রক্ত আর অসংখ্য মা-বোনদের ইজ্জতের বিনিময়ে ছিনিয়ে এনেছিলেন আমাদের স্বাধীন ভূখন্ড। আজ বাঙালি জাতির সেই গর্বিত মাসের একটি দিন। এই মাসেই বাঙালি জাতি স্বাধীনতা পেয়েছিল। এই মাসেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবাষিকী উদযাপিত হয়েছে। এই, মার্চ মাসেই বেনাপোলে শ্রী শ্রী ব্রক্ষ হরিদাস ঠাকুরের পাটবাড়ি আশ্রমে উদ্বোধন করা হলো আর্ন্তজাতিকমানের নির্মানাধীন মন্দির ও নাটমন্দির কমপ্লেক্স।
শুক্রবার বেলা ১১ টার সময় দেশের দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের সোনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্র্মীয় উপাসানালয় বেনাপোলে শ্রী শ্রী ব্রক্ষ হরিদাস ঠাকুরের পাটবাড়ি আশ্রমে আর্ন্তজাতিকমানের নির্মানাধীন মন্দির ও নাটমন্দির কমপ্লেক্সের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন শেষে সম্মাননা ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদাণকালে একথা বলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্রাচার্য এমপি।

বেনাপোলের শ্রী শ্রী ব্রক্ষ হরিদাস ঠাকুর পাটবাড়ি আশ্রম কমিটির সভাপতি শ্রী তাপস কুমার বিশ^াসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বপন ভট্রাচার্য এমপি সোনাতন ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনিমার্নে তারই কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস পরিশ্রমের মাধ্যমে সফলতা এনেছেন এবং বঙ্গবন্ধুর চিন্তাচেতনার বাস্তব প্রতিফলন ঘটিয়ে এদেশের উন্নয়ন করছেন। যে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আজ আমরা উন্নয়নশীল জাতিতে পরিণত হয়েছি।
তাই, যারা এপার থেকে সহায় সম্পত্তি বিক্রি করে দেশত্যাগ করেছেন, তারা খুবই ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়েছেন। যারা এপারে আছেন তারা শেখ হাসিনার অসাম্প্রদায়িক বাংলায় খুব ভালো আছেন। ভবিষ্যতে কেউ দেশত্যাগ করবেন না। “সকলে সম্মিলিত হয়ে আমরা বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক সোনার বাংলা গড়ব” আজ থেকে এই হোক পণ।

এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে যশোর-১(শার্শা)’র সাংসদ আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, বেনাপোলের শ্রী শ্রী ব্রম্ম হরিদাস ঠাকুরের পাটবাড়ি আশ্রমটি দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সোনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উপাসানালয়। এখানে দেশের সকল জেলা থেকেই পূজারিরা আসে আরাধনা করে প্রাণ জুড়াই। সেসাথে পাশর্^বর্তী দেশ ভারতসহ বিশে^র কয়েকটি দেশ থেকে ভক্তরা আসে বেনাপোলের ব্রম্ম হরিদাস ঠাকুরের পাটবাড়ি আশ্রমে। যে কারণে এখানে একটি দৃষ্টি নন্দন আর্ন্তজাতিকমানের মন্দির নির্মান করা একান্ত প্রয়োজন। এসময় তিনি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্রাচায়ের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেন।

অপরদিকে ৫৭০ বছরের নিতাই গৌড় মন্দির ভেঙে নতুন মন্দির নির্মাণে বাধা হয়ে একদল সোনাতন সম্প্রদায়ের সদস্যরা দাবি করেন, পুরাতন মন্দিরকে টিকিয়ে রেখে নতুন মন্দিরের নির্মাণ কাজ করতে। সমাধান করেন স্বপন ভট্রাচার্য এমপি ও শেখ আফিল উদ্দিন এমপি। বলেন, ধর্মীয় অনুভূতিকে আঘাত করে নয়, সারা বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর দৃষ্টি দিয়ে তারই কণ্যা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে সবকিছুর পরিবর্তণ করতে হবে। মানুষের সক্ষমতার পরিবর্তনের সাথে সাথে সবকিছুরই পরিবতর্ণ হয়। আজ আমরা তলা বিহীন ঝুড়ির দেশ থেকে ঘুরে দাড়িয়েছি। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় এখানে অনেক পরিবর্তণ হবে। পূর্বের টিনের আটচালা চাল ভেঙে যেমন আস্তে আস্তে বেনাপোলের পাটবাড়ি আশ্রমের দৃষ্টিনন্দন অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আশাকরি এক বছরের মধ্যে এখানকার উন্নয়ন আরো বেশি হবে। এখানে আর্ন্তজাতিক মানের একটি মন্দির কমপ্লেক্স নিমান হতে চলেছে। পুরাতন ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে মন্দিরের সাবেক সকল ফলক অক্ষুন্ন রেখে বাকি উন্নয়ন কাজ চলবে। দেশের সকলক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন হচ্ছে। এখানেও মনের সংকীর্ণতা ঝেড়েফেলে উন্নয়ন সাধন করতে হবে।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, শার্শা উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা, নাভারন সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরান, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, জাতীয় হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের নেতা শ্রী শ্যামল সরকার, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ যশোর জেলা শাখার সভাপতি শ্রী অসিম কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক শ্রী যোগেশ দত্ত সাধারন, যুগ্ম সম্পাদক তাপস ঘোষাল, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ শার্শা উপজেলা শাখার সভাপতি শ্রী বৈদ্যনাথ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্রীমতি অঞ্জলী রাণী দাস, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ¦ এনামুল হক মুকুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদারসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ, সূধী সমাজ ও সোনাতন ধর্মাবলম্বী বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।