যশোরে ডিজেল চুরির অভিযোগে মামলা ট্রাকের হেলপারসহ গ্রেফতার-২

যশোর প্রতিনিধি: ট্রাকের হেলপার কর্তৃক ট্রাকের মধ্যে থেকে দুইশো লিটার ডিজেল চুরি করে বিক্রি করার অভিযোগে হেলপার ও তেল বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছে, যশোর সদর শহরের বকচর মাঠপাড়ার আব্দুল কাদের এর ছেলে নাজমুল হাসান ও রামনগর বিহারী কলোনী ক্যাম্পের কামরুদ্দিনের ছেলে কোরবান। এ ঘটনায় ট্রাকের মালিক বাদি হয়ে বুধবার দিবাগত গভীর রাতে ট্রাকের হেলপার ও তেল বিক্রেতা কোরবানকে গ্রেফতার করেছে।
যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ঠুটে কালামপুর গ্রামের মৃত কোলিম ব্যাপারীর ছেলে মাহবুবুর রহমান বাদি হয়ে মামলায় বলেছেন, তিনি ট্রাক মালিক ও চালক। নাজমুল হাসান তার ট্রাকের হেলপার হিসেবে চাকুরী করে। গত ১২ জানুয়ারী বেলা ২ টায় নওয়াপাড়া হতে সিমেন্ট লোড দিয়ে মাহবুবুর রহমান মণিরামপুর বাজারের গরু হাটের মসজিদের পাশের্^ হেলপার নাজমুল হাসানের কাছে গাড়ীর চাবি দিয়ে তাকে গাড়ী দেখাশুনার দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে নিজ বাড়িতে চলে যায়। পরের দিন ১৩ জানুয়ারী ভোর সোয়া ৫ টায় পুনরায় গাড়ীর কাছে আসেন ও আনলোড করেন তিনি। পরবর্তী ট্রিফের জন্য নওয়াপাড়া যাওয়ার জন্য গাড়ী চালু করতে যায়। গাড়ী চালু হয় না। ট্রাকের তেলের ট্যাংকী চেক করে দেখেন ট্যাংকীতে কোন তেল নেই। হেলপার নাজমুল হাসানের কাছে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় ১২ জানুয়ারী রাতে মালিকের অনুপস্থিতিতে নিজে চালিয়ে গাড়ীটি রামনগর বিহারী কলোনী ক্যাম্পের মোড়ে এসে কোরবান আলীর কাছে তেলের ট্যাংকী হতে ২শ’ লিটার তেল বিক্রি করে। যার আনুমানিক মূল্য ১৩ হাজার টাকা। ১৩ জানুয়ারী বেলা ৩ টায় নাজমুল হাসানকে নিয়ে কোরবান আলীর দোকানের এসে উক্ত তেল বিক্রয়ের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে স্বীকার করে ১২ হাজার টাকার বিনিময়ে উক্ত তেল ক্রয় করেছেন। কোরবান একজন চোরাই তেল ক্রয় বিক্রয়কারী। পরে কোতয়ালি মডেল থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে উক্ত দুই চোরকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করে।