রঙিন পাখা : রুমী

রঙিন পাখা
রুমী
স্বপ্নীল আকাশ উড্ডিয়মান আমি
শীতার্ত রাত্রি বেলা
একটু বিশ্রামে থামি
শুনশান চারপাশ ঝিঁঝিঁ পোকার ডাক
থেকে থেকে শীতে আর্তনাদ, শিঁয়ালের হাক
ওই বুঝি সূয্যি জাগেজাগে
চলা শুরু উড়ন্ত বলাকার আগে
ভোর আসে শিশির ঝরায় বৃষ্টির মতো
সিক্ত হয়ে তবু ডানা ঝাপটায় কতো
পথকে চিনলেও ডানায় ভর করে
উড়তে চাইলেও নাহি পারে।
মেঠোপথে যায় আমি নেমে
উড়ে চলার গতি যায় কেনো থেমে?
কাঁচা বয়স অবুঝ মন কি বুঝে
মন মাতে তাই রঙিন রঙের মাঝে
তাইতো আজ মন রঙিন পাখা
উড়ে চলতে চাই এ শাখা ও শাখা
বুঝে যখন মন
থামতে চাই তখন
মন রঙিন পাখা ভেঙে থেমে যায় পথে
অযতনে পাওয়া কষ্টগুলোর মালা গাঁথে
উড্ডিয়মান রঙিন পাখার আমি
ধরণীর পরে নামি
স্বপ্নীল আকাশ আজ
রঙের নেই কোন সাজ
তবু ভাবি আকাশ পানে চেয়ে
সুখে আছি আমি তোমার দেয়া কষ্ট নিয়ে।