আশার আলো : সংহিতা মজুমদার

আশার আলো
সংহিতা মজুমদার

মনের দরজা বন্ধ করে অন্ধকারে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলাম,
ভীষণ একাকিত্বের শুষ্ক বাতাসে নিঃশ্বাসে
কষ্ট হচ্ছিলো,
বুকে পাথর চাপা কষ্ট ভীষণ শূন্যতা এনে দিয়েছিলো,,
আমি ক্রমশ পরাজিত হতে হতে পুড়ে যাচ্ছিলাম, নিরুত্তেজ হচ্ছিলাম|
আমার ভালোবাসার আলো নিভে উত্তাপটুকুও যখন শেষ,
আমার নিঃশ্বাসে যখন মৃত্যুর ঘ্রাণ, ঠিক তখন তুমি এলে |
নির্জন মৃত্যুর গুহার থেকে একটানে নিয়ে এলে আলোর উৎসবে,
এলোমেলো জীবনটাকে আবার করে সাজানোর ইচ্ছা হলো,
জীবনের উদ্যানে আবার চারাগাছ জন্মালো |
অনন্ত শূন্যতাকে সরিয়ে ফিরিয়ে দিলে আলোকিত তীরে আমায়,
অপরিচিতের পর্দা সরিয়ে হলে বড়ো আপন |
মুগ্ধ নয়নে তোমায় দেখে, অনুভবে তোমায় ছুঁয়ে,
জ্বেলে নিলাম আবার করে জীবনের আলো |
আশার আলোয় ভরিয়ে দিলে জীবনটাকে,
এভাবেই অন্ধকার দূরে সরে গিয়ে,,
ছড়িয়ে পড়ুক জীবনে আশার আলো ভালোবাসার আলো ||