যশোর অফিস: যশোর শহরের উপশহর বাবলাতলা ব্রিজ এলাকায় ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে মিরাজ (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৫টার দিকে গুরুতর অবস্থায় তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মিরাজ সদর উপজেলার পাগলাদাহ মাঠপাড়া এলাকার মানিক হোসেনের ছেলে। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি ছিলেন। ঘটনাস্থল থেকে প্রতাক্ষদর্শি , হাসপাতাল ও পুলিশের জানায় , ছয় ভাই-বোনের মধ্যে ঝগড়া চলাকালে এ ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে। নিহতের বড় বোন ময়না বেগম জানান, আজ (শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর) দুপুরে তার বাড়িতে ভাই-বোনদের দাওয়াত ছিল। দাওয়াতে ছোট ভাই মিরাজ, তার দুই স্ত্রী, ছোট ভাই ইরান ও অপর তিন বোন আসেন। দুপুরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে মিরাজের সাথে তার গোলাযোগ হয়। একপর্যায়ে মিরাজ তাকে চড় মারে। ছোট ভাই ইরান বাধা দিতে গেলে মিরাজ তাকেও মারপিট করে। একপর্যায়ে সব ভাই-বোনের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এসময় ইরান প্তি হয়ে মিরাজকে ছুরি মারে। পরে চিৎকার শুনে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসে এবং তারা মিরাজকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার অমিয় দাস বলেন, ‘মিরাজের বুকের বামপাশে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তরণের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে জানতে চাইলে যশোর কোতোয়ালী থানার ওসি (অপারেশন) আবু হেনা মিলন বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে ভাই-বোনের মধ্যে ঝগড়ার সূত্র ধরে হত্যার ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্ত ইরানকে ধরতে অভিযান শুরু হয়েছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলেছে বলে জানান তিনি।