স্বাআলো : যশোরে বাদল ও আহাদ নামে দুই যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া (বারপাড়া) গ্রামের মাঠের মধ্যে তাদের কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

নিহতদের বাড়ি সদর উপজেলার জয়ন্তা গ্রামে। বাদল হোসেন (২৫) ওই গ্রামের আক্তার হোসেনের এবং আহাদ আলী (২৪) লোকমান হোসেনের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মনিরুজ্জামান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আহাদ আলী এবং বাদল হোসেন ডিস লাইনের কাজ করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মোটরসাইকেল যোগে সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের দক্ষিণপাড়ার নিউ সোনা ব্রিক্সের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন। মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া (বারপাড়া) গ্রামের মাঠের মধ্যে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা তাদের পথরোধ করে এলোপাতাতি কোপালে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান। এরপর তাদের ওই মাঠের মধ্যে ফেলে রেখে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। পরে পথচারিরা দেখে স্থানীয় লোকজনদের জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। এছাড়া বসুন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম খাঁন রাসেল ও নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোদাচ্ছের আলী ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে আটক করা বা কে বা কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা শনাক্ত করা যায়নি।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম বলেছেন, ঘটনাটি মণিরামপুর থানাধীন ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া (বারপাড়া) মাঠের মধ্যে ঘটেছে। সেখানে পুলিশের একাধিক টিম আছে। অপরাধীদের শনাক্ত ও আটকের চেষ্টা চলছে।