ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের ঝিকরগাছায় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (১৪ অক্টোবর) রাতে ঝিকরগাছা সদর ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাতেই প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার রুফি মিয়া ওরফে শুভ (২৬) ওই ইউনিয়নের দোস্তপুর গ্রামের নিয়ামত আলীর জামাতা।মামলার অন্য আসামিরা হলেন, দোস্তপুর গ্রামের মৃত মফিজুর মেম্বারের ছেলে রাহুল (২২), শওকত আলীর ছেলে সোহান (২৩) ও মৃত মোশারফের ছেলে সাদ্দাম (২০)। ভুক্তভোগীর স্বামী আজগর আলী জানান, নিয়ামত আলীর জামাতা রুফি মিয়া ওরফে শুভ মোবাইলে তার স্ত্রীকে বাড়ির পাশের রাস্তায় আসতে বলেন। তার স্ত্রী রাস্তায় পৌঁছানো মাত্রই শুভ তার হাত ধরে মাঠের দিকে নিয়ে গিয়ে পূর্বপরিকল্পিতভাবে রাহুল, সোহান ও সাদ্দাম তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ঝিকরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। মূল আসামিকে গ্রেফতার করেছি। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।