নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশিষ্ট কবি, প্রাবন্ধিক ও গবেষক পদ্মনাভ অধিকারীর ১২ অক্টোবর চৌষট্টিতম জন্মদিন। ১৯৫৮ সালের এই দিনে তিনি যশোর পৌরসভার বকচরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ব্রিটিশ খেদাও আন্দোলনী শিক্ষক নলিনীকান্ত অধিকারী, মাতা-গৌরী অধিকারী। চার ভায়ের মধ্যে তিনি সর্বকণিষ্ঠ। কবি পদ্মনাভ অধিকারীর সাহিত্যের হাতেখড়ি সেজভাই ডাক্তার ও সাহিত্যিক মধুসূদন অধিকারীর কাছে ১৯৭৬ সালে এপ্রিল মাসে। তার উল্লেখ্যযোগ্য গ্রন্থ: (১) যাব না (২) অন্তরে অন্তরে (৩) বিধ্বস্ত জনপদ (কাব্য) (৪) চিৎকার (৫) মর্তলোকে দিব্যরথ (কাব্য) (৬) ফেরারী (৭) প্রহরী ও শিশু কিশোর (উপন্যাস) তিন পা-ন্ড-১ম খন্ড (৮) একবৃন্তে (৯) মহর্ষিশী লালন সাঁই (১০) আধুনিকতা ও আধুনিক কবিতা প্রসঙ্গে (প্রবন্ধ)। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বাংলা সংবাদপত্রে সাহিত্য পাতায় লিখে আসছেন। এ ছাড়া ভারত, বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক ও সাপ্তাহিক এবং মাসিক পত্রিকাতে ১৯৯২ সাল থেকে তার লেখা প্রকাশ হয়ে আসছে। এ পর্যন্ত তার কবিতাসহ, গল্প, প্রবন্ধ, গবেষণা ৬ শ এর অধিক প্রকাশিত হয়েছে।
খুলনার মোহনা সাহিত্য ও সমাজ কল্যাণ সংগঠন কর্তৃক গবেষণা সাহিত্যের জন্য সম্মাননা (২০০৩), সিরাজগঞ্জের ক্যাপটেন মনসুর আলী সাহিত্য পরিষদ কর্তৃক আজীবন সম্মাননা (২০১২) লাভ করেন। তিনি রূপায়ণ সম্প্রদায় (গবেষণা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি) এবং বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।
মাইকেল মধুসূদন দত্ত গবেষণা ফাউন্ডেশনের আজীবন সদস্য। সেই সাথে যশোর ইনস্টিটিউট,যশোর শিল্পকলা একাডেমি ও গ্লোবাল জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা পর্ষদের সদস্য। তার সম্পাদিত সাহিত্য পত্রিকার নাম ‘বিদ্রোহী। এছাড়া তার দশটি অন্তমিল কবিতার সুরারোপ ও স্বরলিপি করেছেন বেতারের কণ্ঠশিল্পি সাধন কুমার অধিকারী ও গোপীনাথ দাশ। আজকের এই দিনে তিনি সবার আর্শিবাদ কামনা করেছেন।
২০২১সালের বইমেলায় প্রকাশের জন্য ১। এই হেমন্তে (কাব্য) ২। সিঙ্গেল মাদার (ছোট গল্প।) এর পান্ডুলিপি প্রস্তুত রয়েছে। কবি পদ্মনাভ অধিকারীর জন্মদিনে বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।