নওয়াপাড়ায় তিন সাংবাদিকের উপর হামলা আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে সংবাদ সন্মেলন। টাইম ভিশন ২৪

স্টাফ রিপোর্টার : নওয়াপাড়ায় তিন সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনার প্রতিবাদে এবং অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে গতকাল শনিবার প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দৈনিক ইত্তেফাকের অভয়নগর সংবাদদাতা ও যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ- সভাপতি মোঃ বদরুজ্জামান। এসময় সংবাদ সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহকারী মহাসচিব মহিদুল ইসলাম মন্টু, যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু
আহমেদ, সহ-সভাপতি তহীদ মনি, সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোর্শেদ আলমসহ নওয়াপাড়ার প্রায় ১০/১২ জন সাংবাদিক। সংবাদ সন্মেলনে সাংবাদিক বদরুজ্জামান বলেন, নওয়াপাড়া বেঙ্গল খেয়াঘাট অবৈধভাবে দখলের বিরুদ্ধে যশোরের দ’ুটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করার জের ধরে গত ৮ অক্টোবরদুপুর সাড়ে ১২ টার সময় নওয়াপাড়ার কুখ্যাত সন্ত্রাসী ফারুক, মিঠু শেখসহ ৮/১০ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী আমার উপর হামলা করে। এ সময় ঠেকাতে গেলে সন্ত্রাসীরা আমার সহকর্মী কাজী মোস্তাক আহমেদ, দবির উদ্দিন
মোল্যা ও শেখ মোঃ আবুল বাসারকে বেড়ধক মারপিট ও আমার পত্রিকা অফিস ব্যাপক ভাংচুর করে। এ ঘটনায় আমার সহকর্মী কাজী মোস্তাক আহমেদ উল্লেখিত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে অভয়নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ৯/২০২০, তারিখ- ০৮/১০/২০২০। এছাড়া এদের বিরুদ্ধে যশোর আদালতে চাঁদাবাজি মামলা রয়েছে। যার সি.আর নং- ৫৫/২০২০, অভয়নগর থানায় সাধারণ ডায়েরী রয়েছে। যার নং -৩৭০/২০২০। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এসব মামলা এবং একাধিক অপরাধের অভিযোগ থাকার পরেও পুলিশ উল্লেখিত আসামীদের না ধরে উস্কানী দি”েছ এবং আমাকেহয়রানি করার উদ্দেশ্যে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার পরামর্শ দি”েছ। যার ফলে আমি এবং আমার সহকর্মী সাংবাদিকরা নওয়াপাড়া শহরে এসব চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের ভয়ে টিকতে পারছিনা। এসব বিষয়ে ¯স্থানীয় থানা পুলিশকে জানানোর পরেও তারা কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা। এদিকে গত ৯ অক্টোবর নওয়াপাড়া প্রেসক্লাবে এই হামলা মামলার আসামীরা নওয়াপাড়ার একজন হলুদ সাংবাদিকের(যিনি ক্যাডার থেকে লিডার) সহায়তায় আমাকে তথাকথিত সাংবাদিক আখ্যা দিয়ে একটি মনগড়া, মিথ্যা সংবাদ সন্মেলন করেন। আজকের সংবাদ সন্মেলন থেকে আমি উক্ত মিথ্যা সংবাদ সন্মেলনের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানা”িছ। একই সাথে আমি প্রশাসন, যশোর প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য সাংবাদিক সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দের ঐক্যবদ্ধ সহযোগিতা কামনা করছি।