শালিখায় অবৈধ আড়বাধ উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে – উপজেলা নির্বাহি অফিসার

নাজমুল হক, শালিখা থেকে: শালিখার বিভিন্ন নদী ও খালে-বিলে অবৈধ আড়বাধ সম্পূর্ণ উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান চলবেই বলে জানিয়েছেন সদ্য যোগদান কৃত শালিখার উপজেলা নির্বাহি অফিসার গোলাম মোঃ বাতেন। দেশে আমিষের ঘাটতি যেন না হয় এবং ছোট মাছ যাতে বড় হয় তার জন্য সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মনিরুজ্জামান, মৎস্য কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মীর লিয়াকত আলী, ক্ষেত্র সহকারী দেবাশীষ বিশ্বাস, পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যসহ ৩০/৪০ জন শ্রমিক নিয়ে আড়বাঁধ উচ্ছেদের অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন। গত শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ফটকি নদী, দীঘলগ্রাম পটভাড়া বিলে, ভাটোয়াল বিলে, গবিন্দপুর-শেওজগাতী খালে, নাঘোসার খাল সহ ১১ টি আড়বাধ উচ্ছেদ করেছেন। এ সময় ১০ হাজার বর্গমিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে জনগণের সামনে পুড়িয়েছেন। দুই লক্ষ টাকার মাছ ধরার সরঞ্জাম ধংস সহ প্রায় তিন লক্ষ টাকার ছোট – বড় বাঁধে আটকে থাকা মাছ অবমুক্ত করেছেন। অনেক বাঁধের মালিকদের মুসলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া গত সপ্তাহে ধনেশ্বর গাতী ভড়ভড়ে বিলের ফটকি নদী থেকে প্রভাবশালী দের ৩/৪ টি আড়বাধ উচ্ছেদ করেছেন। এবং লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ পানিতে অবমুক্ত করেছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহি অফিসার বলেন অবৈধ আড়বাধ উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।