ছলোনাময়ী নারী : কাঞ্চন চক্রবর্তী

:কাঞ্চন চক্রবর্তী । টাইম ভিশন ২৪

পর্ব (২২)
ছলোনাময়ী নারী
কাঞ্চন চক্রবর্তী

রূবি বললো “আজ একটা জরুরী কথা আছে” “বলো” “বিয়ের পর মেয়েরা শ্বশুরের বাড়ি থাকলে মেয়েদের সম্মান বেড়ে যায় আর ছেলেরা শ্বশুর বাড়িতে থাকলে সম্মান কমে যায়, এবং স্বামীরা শুশুর শাশুড়ি শালা শালি স্ত্রী এদের চাকর হয়ে যায় কথাটা সঠিক কিনা?” “হ্যা তুমিই ঠিকই বলেছো কিন্তু এসব কথার মানে আমি ঠিক বুঝতে পারলাম না, আমি কি শুশুর বাড়িতে গিয়ে থাকছি নাকি?” “তার আগে তোমার দেনাটা পরিশোধ করি” “কার দেনা? (রূবি ড্রয়ার থেকে টাকার বান্ডিল বের করে রমিজের হাতে দিয়ে) বললো “এখানে পুরা একলক্ষ দশ হাজার টাকা আছে গুনে নিতে পারো কম নেই,তোমার টাকাটা কি ঠিক মত বুঝে পেয়েছো?”(স্বাগত)রূবির কথা ও কাজে মিল আছে তো? রূবি সংক্ষেপে উত্তর দিল, “যে কথা বলা হয়নি,সেটা বলা খুবই প্রয়োজন, কারণ বিয়ের পর তুমি হয়তো বলবে এমনতো কথা ছিলনা, আগে জানলে আমি বিয়ে করতাম না” “কথাটা কি সেটা তো বলো” “বলবো তো বটেই,আমি চাইনা দাম্পত্য জীবনে যেন কোন প্রকার ভুল বোঝাবুঝি না হয় সেজন্য সব কিছু জেনে বুঝে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া উচিৎ বলে আমি মনে করি” “প্লিজ রূবি জিলাপির মত কথা না বলে সোজাসুজি বললে ভাল হয়” “হ্যা তাহলে সোজাসুজি বলি, আমার বাবা -মা চান না যে, তাদের মেয়ে বিয়ের পর তার মেয়ে জামাই ঢাকার বাইরে যেন না থাক, আমি গ্রামে থাকতে পারবো না,এমন কি আমার বাবা-মার সাথেও থাকবো না,কারন আমি চাই তোমাকে নিয়ে আলাদা থাকতে, বিয়ের পর বাবাকে বলবো তোমার ব্যবসা তোমার জামাইকে বুঝিয়ে

চলবে- – – – –