কবিতা : এম এ কাসেম অমিয়

কবিতা
এম এ কাসেম অমিয়

কবিতা—-
সে তো জীবনের কথা বলে।
জীবনবোধের কথা বলে।
নিজের কথা বলে।

কবিতা—
সে তো প্রেমের কথা বলে।
বিরহের কথা বলে।
সে তো দ্রোহের কথা বলে।

কবিতা—–
সে তো পরিবারের কথা বলে।
সমাজের কথা বলে।
সমাজ সংস্কারের কথা বলে।
সংস্কৃতির কথা বলে।

কবিতা—–
সে তো রাজনীতির কথা বলে।
দেশের কথা, মানুষের কথা বলে।
অন্যায়, অবিচারের কথা বলে।
অনৈতিকতার কথা বলে।

কবিতা—-
সে তো শিক্ষার কথা বলে।
শিক্ষা ব্যবস্থার কথা বলে।
নৈতিক শিক্ষার কথা বলে।

কবিতা—–
সে তো নিরন্ন মানুষের কথা বলে।
অবহেলিত শ্রমিকের কথা বলে।
অনৈতিক শিশুশ্রমের কথা বলে।

কবিতা—–
সে তো প্রকৃতির কথা বলে।
পশু-পাখির কথা বলে।
মাটির কথা, সবুজের কথা বলে।
বন-বনানী, সাগর-নদী-পাহাড়ের কথা বলে।

কবিতা—–
সে তো ধর্মের কথা বলে।
সৃষ্টির কথা বলে।
সৃষ্টিকর্তার কথা বলে।

কবিতা—-
সে তো দেশ থেকে দেশান্তরের কথা বলে।
আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের কথা বলে।
বিশ্বায়নের কথা বলে।
বিশ্ব বিবেকের কথা বলে।

কবিতা—-
সে তো সময়ের কথা বলে।
অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যতের কথা বলে।
সে তো ইতিহাস, ঐতিহ্যের কথা বলে।

কবিতা——-
সে তো দেশ, কালের সীমানা ছাড়িয়ে —
বাড়ায় বন্ধুত্বের হাত।
বাঁধে শক্ত বাঁধনে—-
ধর্ম, বর্ণ, জাতির বেড়ি ভেঙ্গে।

কবিতা—-
সে তো আধুনিক কালের গণ্ডি পেরিয়ে—
হয়ে যায় মহাকালের।
হয়ে যায় অনন্তকালের।