চিঠি -২: কাজী লিনা আরাফাত

চিঠি -২
২২শে শ্রাবন
কাজী লিনা আরাফাত
প্রিয়, নীল বেদনা…

সকাল ১১টা, ঘুম ভাঙলো, সাথে তুমুল বৃষ্টি। বৃষ্টির এলোমেলো ছাঁচ আমার বারান্দায় আঁচড়ে পড়ছে,, সাথে আমার মনের ভেতরটাও এক অদ্ভুত দুঃখ ভালোবাসায় ভরে উঠেছে,,, এক কাপ চা হাতে আমি বারান্দার এককোণে বসে ঝুম বৃষ্টি দেখছি আর মাতাল ঝড়ো হাওয়ায়…. আমি কোথায় যেন হারিয়ে যাচ্ছি……. মনের স্মৃতি পাতায় ভীর করছে,, অজস্র স্মৃতি মালা……………

বৃষ্টি আমাদের বড় প্রিয় ছিলো,, কতো শ্রাবণ ধারায় আমরা সারা শহর রিকশার হুট ফেলে ঘুরে বেড়িয়েছি,,,, হাহাহা……..

ঝুম বৃষ্টি মানেই তো,, আমাদের এভাবে হারিয়ে যাওয়া ছিল…… অজস্র বারি ধারায় ,,আমরা ভেসে গেছি সুখের দোলায়।।

“আজি ঝরঝর মুখর ও বাদর দিনে” গানটা দুজনে মিলে গলা ছেড়ে গাইতাম,,, আর বৃষ্টিতে ভিজতাম,, রিকশাওয়ালা কিছুক্ষণ পরপর পেছনে ফিরে চাইতো আর মুচকি হাসতো।।

রিকশা থামিয়ে, টংঘরে চা খেতাম, কদম ফুল কিনতাম, কি অদ্ভুত ভালো লাগা ছিলো তোমার,, আমাকে ঘিরে!!!!

জান,,,আমি একদমই এই স্মৃতিগুলো মনে করতে চাইনি,, হঠাৎ সকাল ১১টার বৃষ্টিটা….. আমাকে স্মৃতির অতল গহব্বরে নিয়ে গেলো।। ক্ষমা করো,, প্রিয়, নীল বেদনা আমার…..ভালো থেকো,,, ও তুমি তো জান….. তোমাকে লেখা চিঠি গুলো আমি কিন্তু ছিঁড়ে ফেলি,, তাতে করে আমার দুঃখ ভালোবাসার প্রতিনিয়ত পরিসমাপ্তি ঘটে………………।।

ইতি তোমার,
উৎসা

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, যশোর শাখা।