মৃত্যুর ভাবনা : নিলাশা আফরিন মৌ

মৃত্যুর ভাবনা
নিলাশা আফরিন মৌ

প্রতিনিয়ত মনের মধ্যে একটা প্রশ্ন ঘুরে
মৃত্যুটা অনেক কাছে নাকি অনেক দূরে
শুনেছি আমি জন্মালে মরিতে হবে
মনের মধ্যে লোভ লালসা হিংসা-বিদ্বেষ কেনো তবে?

পৃথিবীতে সুখী হওয়ার জন্য কি অনেক কিছু লাগে?
নিজেকে সুখী করার কেন এত অন্যায় আকাঙ্ক্ষা জাগে?
বেঁচে থাকার জন্য লাগে তো মাত্র দু মুঠো অন্ন
তবে মারামারি খুন-খারাবি কেন তারই জন্য?
জীবন যাপনে সামান্য কিছু বস্ত্র লাগে,
তবে বিলাসিতার কি প্রয়োজন।
সবকিছুর মাঝে যে পাপ কুড়াচ্ছি করে কত আয়োজন।

একবার কি ভেবে দেখেছি জীবনে কত পাপ করেছি
রঙের ভুবনে নিজেকে রাঙ্গিয়ে রঙের নেশায় ডুবিয়েছি।
রঙিন কাপড়ে নিজেকে মুড়েছি, আত্মাকে সাজানোর জন্য কি করেছি?

ন্যায় অন্যায়ের বিভেদ ভুলেছি,
সম্পদের দম্ভে ধনী গরীবের ব্যাবধান গড়েছি।
ভুলেছি তারাও মানুষ আমরাও মানুষ, রক্ত সবার এক,
সৃষ্টি তো একজনই করেছে, অতুলনীয়, অদ্বিতীয় তিনি যে একক।

চোখে রঙিন চশমা পরেছি, বিধাতার নিয়ম ভুলে নিজের মতো বিধান গড়েছি।
কোনদিনও পাপ পুণ্যের হিসাব করিনি,
পাপের খাতা ভরেছি পুণ্যের খাতা ভরাতে পারেনি।

পৃথিবীর সুখ,সেতো সুখ নয় শয়তানের ধোকা
পরপারে কেউ যাবেনা যেতে হবে একা।
কথাটি কোনদিনও করিনি স্মরণ
আমারও যে একদিন হবে মরণ।