বেদনাচ্ছন্ন : রুম্পা রায়

বেদনাচ্ছন্ন
রুম্পা রায়
বিরহবেলায় মন আঙিনায় পাথর চেপে আসে,
দুঃখেরা আমায় বরাবরই, বড্ড ভালোবাসে।

নিরাশ বেলা দুঃখের ভেলা লাগেনা কভু ভালো,
সুখের মুখে কালি জমে,হয়েছে ভীষণ কালো।

কষ্ট মাখা অনুভূতির পাখা জাপটে ধরে জোরে,
মিনতি করি কড়োজোড়ে,ছাড়েনা তবু মোরে।

বিষাদ বলে ভন্ড ছলে হেথায় পানে আয়,
আমি ছাড়া কোন চুলো,কোথায় পাবি ঠাঁয়!!!

হৃদয় পটে জালার চোটে জমেছে ধুলো কতো,
কি জানি কি! কেমনে আবার,শুকাবে এমন ক্ষত!!!

আগুনে জ্বলে মোমে গোলে নিঃশেষ অনুভূতি,
আগ বাড়িয়ে জ্বালিয়ে আগুন, হলো নিদারুণ ক্ষতি।

মন্দ বলে ছন্দ ভুলে এই দুয়ারেই থাক,
ভালোরা সব দূরে গিয়ে, খারাপের গান গাঁক।

অথৈ জলে মনের ভুলে ডুবেছে শরীর আমার,
ভাসতে গেলে ডুববো বেশি,শাস্তি পাবো নামার।

আহারে মন করে জালাতন পুড়িয়ে করে ছাই,
একবিন্দু পাই যে কোথা, শান্তি ধারার ঠাঁই।

সুখকে জানা মনকে মানা সবই আমার বৃথা,
জলবো আমি জ্বলবোই তো,শেষ ঠিকানা চিতা।