ফসলের মাঠ : এম এ কাসেম অমিয়

ফসলের মাঠ
এম এ কাসেম অমিয়

এই সেই গ্রাম্য মেঠো পথ।
পাশে বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠ।

এখানে সারা দিনমান ধরি,
রোদ জল উপেক্ষা করি,
গ্রামের যত কৃষাণ কৃষাণী,
লাঙ্গল-গরুর সাথে খেলা করি,
রুক্ষ মাটিরে করে ফালি ফালি।

বেছন বোনে আর, জীবনের স্বপ্ন আঁকে।

পরম মমতায় বীজগুলিরে,
মাটির ভিতরে মই দিয়ে দেয় লুকিয়ে।

অপেক্ষায় থাকে কখন বেরুবে জাওয়ালি।
অবশেষে কঁচি জাওয়ালির দেখা মেলে।

অতি যতনে কৃষকেরা,
আগাছা করে ছাপ,
প্রতিটি চারায় বুনে দেয়,
ভালবাসার ছাঁপ।

এমনি করে সারাটি বছর, ফসলের মাঠে লেগে থাকে কাজ।
রবি মৌসুমে রবি ফসলে, ভরে যায় গাঁ।
হেমন্তে মন মেতে উঠে,
সোনালী ধানের ঘ্রাণ।
নবান্নের উৎসব চলে প্রতি ঘরে ঘরে।

পৌষ মাসে খেজুর গাছ কেঁটে,
গাছি পাঁতায় হাড়ি।
মিষ্টি রসে টইটুম্বুর,
সে মধুর স্বাদে নেয় মন কাড়ি।

খেজুরের রস জ্বালায়ে জ্বালায়ে,
গুড় করে কৃষাণী।
সে গুড়ের ক্ষীরের উৎসব চলে,
মাতোয়ারা হয় গ্রামখানি।