মনডা খুপ খারাপ ল্যাইগতেছে : রেজাউল করিম রোমেল

মনডা খুপ খারাপ ল্যাইগতেছে
রেজাউল করিম রোমেল

সেদিন আমাগের বাড়ির পাশের
পুকুরি গোসুল করতি যায়ে,
মানুষগের সাথে বাজি ধইরে
পুকুরির এ পাড়ের তে ওই পাড়ে
সাঁতার কাইটে চলে গিইলাম।
তা আমার এই সাঁতার কাটা এটটা মাইয়ে
পাশেরতে দাঁড়ায় দেখতিল।
ওই-দিনি আমি রাস্তা দে হাঁইটে
যাওয়ার সুমায় মাইয়েডা আমারে ডাইকে
বইললো,-
আপনে না আইজকে সাঁতার কাইটে
পুকুরির এই পাড়ের তে
ওই পাড়ে চইলে গিইলেন?
আমি কলাম,-হ্যাঁই।
মেয়েডা বইললো,-আমি দেকিলাম।
আমার খুব ভাললাগিল।
কতাডা কোয়ে মেয়েডা হাসতি লাইগলো।
ওর ওই হাসিডা আমার চোকি একুনো ভাসে।
মাইয়েডার নাম সুমি।
আমি আগেরতেই চিনতাম।
কিন্তু এর আগে কোনো দিনিই এরাম
কোইরে মেয়েডারে আমার ভাললাগিনি।
আমি সুহাগ।
খাজুরা বাজারে চালির মিলি কাজ করি।
সেইদিনির পরেরতে প্রতিদিনই সকালে
সুমির সাতে আমার দেকা হোতো।
ও স্কুলি য্যাতো আর আমি যাতাম কাজে।
সুমি আমারে দেকলিই শুধু হাইসতো।
ওর হাসি দেখলি
আমারও হাসি আইসে য্যাতো।
আমাগের হাসি দেকে স্কুলি যাওয়া
অন্য ম্যাইয়েরাও হাইসতো।
একদিন ডাইকে কলাম,-
আই লাভ ইউ।
কতাডা শুইনে সুমি মেলাক্ষণ হাসতিলো।
তারপর ওগের স্কুলির
পিছনি কয়দিন দেকাও করিছি।
একদিন ওর চাচাতো ভাই আমাগের
কতা কওয়া দেকে ফ্যালাইলো।
সেইদিন সুমি আমারে কইলো,-
আমি নিশ্চিত আমার চাচাতো ভাই
বাড়ি যায়ে আমার নামে নালিশ করবে।
ওর পরেরতে সুমির সাতে আমার
দেকা হযনা,কতা হয় না,স্কুলিও আসেনা।
তাই মনডা খুপ খারাপ ল্যাইগতেছে।