তৃনমূল ও ত্যগী নেতা-কর্মীদের জীবন জীবিকা : মিলন কাজি

তৃনমূল ও ত্যগী নেতা-কর্মীদের জীবন জীবিকা : মিলন কাজি । টাইম ভিশন ২৪

তৃনমূল ও ত্যগী নেতা-কর্মীদের জীবন জীবিকা 

টাইম ভিশন ২৪ : তৃনমূল ত্যগী নেতা-কর্মীরা আজ বড়ই অসহায় ১৯৯৬ পর থেকেই বঞ্চিত। ত্যগী নেতা-কর্মীরা আজ কাওয়া। কাক বলে মন্ত্যব্য করার কিছুটা উদাহারণ তুলে না ধোরলেই নয় ! দেখুন কাক দিন রাত পরিশ্রম করে একটি বাসা তৈরি করে এবং ডিম পাড়ে। এদিকে সুযোগ সন্ধানী কোকীল চুপিসারে এসে সেই ডিম নস্ট করে সুযোগ সন্ধানীর ফসল রোপন করে যাই। সেই বিজ সরল মনে কাক যত্নকরে তাঁ দিয়ে অঙ্কুর ফুটিয়ে কাকের স্বপ্ন ভঙ্গ করে। কোকীল বসন্তের সুখ কাকের বাসায় করে কাকের স্বপ্নকে ধংস করে। এদিকে কাক হয় ঘর ছাড়া পথিকের মত এক দুর্বিসহ জীবনের কাঙ্গালী। আজ আওয়ামীলিগের ত্যগী নেতা-কর্মীদের অবস্থা ঠিক কাক ও কোকীলের মত। কাক আছে ডাস্টবিনে আর কোকীল আছে গ্লাসরুমে ! দু-দিন আগে দেখলাম আমাদের প্রিয় নের্তী বোললেন যদি আওয়ামীলিগ ভোট না পাই তবে তৃনমূল দায়ী থাকবে। এটা কেন হবে ! মাননীয়া নের্তী ২০০১ পর থেকে আজ পর্যন্ত ত্যগী নেতা-কর্মীদের পেটে ঠিকমত ভাত আছে কিনা একবারও খোজ নিয়েছেন! আপনিত আমাদের নের্তী কাম মমতাময়ী মা। মা আমাদের হৃদয়ে রক্ত ক্ষরন হোতে হোতে আজ আমরা রক্ত সুন্যতায় ভুগছি।,, মা,, আপনাকে দেওয়ার মত রক্ত আর আমাদের শরিলে নেই ডাস্টবিনে তেমন পুস্টিকর খাবার থাকে না। এবার বসন্তের গ্লাসরুমের কোকীল দের একটু কাজে লাগান। ক্ষমা কর মা। যতদিন বেচে রব সুধু একটা স্বপ্নের মাঝে । দেখে যেতে চাই । ক্ষুধা মুক্ত, দুর্নীতি মুক্ত,সন্ত্রাসমুক্ত, ধর্ষকমুক্ত, লুন্ঠনমুক্ত চাঁদাবাজমুক্ত ও শোষন মুক্ত বঙ্গবন্ধুর সোঁনার বাংলাদেশ। জয়-বাংলা,, জয়-বঙ্গবন্ধু, জয়হোক কৃষক, শ্রমিক, মেহনতী জনতার এটিই ছিল বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের অঙ্গীকার সরকার হবে জনতার ।

 

লেখকের ভাবনা:
নেতা হতে চাই না তবে সুস্থ পরিছন্ন সমাজ গড়ে তুলতে সুস্থ যুব সমাজ গড়তে চাই। এটাই আমার বর্তমান রাজনৈতিক ইচ্ছা পোষণ করি
আমার ইচ্ছে ক্ষুধামুক্ত,দুর্নীতিমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, শোষণমুক্ত একটি পরিছন্ন সমাজ। যেখানে থাকবে না কোন ক্রোধ হিংসা বির্ধেষ। চাই মুক্ত চিন্তার স্বাধীন সোঁনার বাংলা।

 মিলন কাজি, যশোর।