নিবারণ আমার বন্ধু ছিল : অভ্রনীল আজাদ

নিবারণ আমার বন্ধু ছিল
অভ্রনীল আজাদ

নিবারণ আমার বন্ধু ছিল
হয়তো বন্ধুরও অধিক…
তার কথা শুনতে শুনতে
নিবারিত হলো সব ইচ্ছে-প্রদীপ।
বন্ধুরাও একে একে দূরে সরে গেলো…
দূরে সরে গেল উজ্জ্বল সম্ভাবনা সব।
তবুও নিবারণ রইলো পড়ে একান্ত গহীনের ভিতর—
যারে আমি আজও বুঝতে পারিনি—
সেই আমায় খুব বেশী বুঝে বুঝে
তোমার উঠোন থেকে নিয়ে এসেছিল ফিরিয়ে।
তারপর, সমস্তই অতীত—
কেউ কেউ অযথাই খোঁজে তোমার দোষ।
আজ গোলাপে সুবাস নয় পাই কাটার আঁচড়।
নিবারণ আমার বন্ধু ছিল—
যাকে দেখিনি কখনো, দেখিনি কেউ;
অথচ তোমাকে দেখেই কাটিয়ে দিলাম এতটা বছর।
জানি সবই যে নশ্বর—
রই বা না রই, তুমি যদি রও
ভুলগুলো ভুলে গিয়ে
জমে থাকা শুকনো ফুলগুলো
ছিটিয়ে দিও আমার কবরের পর।।