উড়ছে সবে : অরিজিৎ

উড়ছে সবে
অরিজিৎ

উড়লো কত সাধের ঘুড়ি, উড়লো কত রঙের বেলুন
বন্দী দশার মুক্তি দিয়ে খাঁচার পাখি উড়িয়ে ফেলুন,
উড়ছে কত বিহগ বিবর, উড়ছে কত বিষের ধোঁয়া
উড়িয়ে দেখি স্বপ্ন গুলো, যায় নাকি ওই আকাশ ছোঁয়া,
না যদি ছুঁই আকাশটাকে, তাতেও কিছু নেই তো ক্ষতি
প্যাঁচ খেলবে ওই উপরে, তোমার মতি আমার মতি।
চুকিয়ে দিয়ে সকল হিসেব মৃত্যু পরে আত্মা ওড়ে
জীবদ্দশায় উড়বে কথা, নিন্দাগুলো সঙ্গী করে,
জীবন মানে শুধুই চলা উড়িয়ে দিয়ে ভাবনাগুলো
উড়বে কেতন বিজয়রথে, উড়িয়ে দিয়ে পথের ধূলো।
উড়ছে ক্ষুদে কল্পনারা পক্ষিরাজের পিঠে চড়ে
উড়ুক, তারা দেদার উড়ুক, বাঁধন তাদের যাকনা উড়ে,
বিদ্বজ্জনে ওড়ায় ভুরু, উড়ছে দেখো ওই বখাটে
পরের সুখে অসুখ কেন, নিদ্রা কেন উড়ছে তাতে ?
চিতার আগুন নিভলে পরে উড়বে রে ছাই এই হাওয়াতে
লাভের খাতা ভরবে না আর, শূন্য পাবে সব পাওয়াতে।

সুভাষগ্রাম, কলকাতা