কাটিয়ে ছিলাম দীঘল দিবস : নুর উদ্দিন

কাটিয়ে ছিলাম দীঘল দিবস
নুর উদ্দিন

কাটিয়ে ছিলাম দীঘল দিবস-
তোমাদের সাথে,
আলিঙ্গন করেছিলাম মোরা-
প্রত্যহ প্রভাতে।

হাতে-হাত রেখে,
কাঁধে- কাঁধ মিলিয়ে-
হেঁটেছি প্রিয় ক্যাম্পাস,
“জামেয়া শরাফতিয়ার” আঙ্গিনায়।
রেশা- রেশি আঁড়,
বাদ-প্রতিবাদ,
তেমন কিছু দেখি নাই।

শিক্ষকদের শাসন বারণ,
আর নাড়িছেঁড়া ভালোবাসা-
জ্বলে উঠলো স্বপ্নেরবাতি,
কেটেছে আজ হতাশা।

তোমরা যাঁরা জ্ঞানপিপাসু-
শিখলে অনেক কিছু,
নয়তোকুপথ, পেয়েছো সু-পথ-
অন্ধকারের যম।

হতোবাগা আমি,
দূর্বলও হায়!
শেখলাম অনেক কম।

বন্ধুদের আড্ডা,
মান অভিমান-
আহ্ হাসিমাখা সেই-
ভালোবাসার মুখ গুলো,
আজো ভাসে চোখে।

তোদের অপেক্ষায়-
আজো প্রহর গুনি,
কষ্টে হিয়া কাঁধে দুঃখে দুঃখে।

আজ আমি পথের বিবাগী,
পথে পথে ফিরি আমি-
তোদের লাগি।

এথাই খুঁজি, সেথাই খুঁজি,
মিলেনি কোনো সাড়া-
কি,মান- অভিমান?
নাকি কর্ম ব্যস্ততাই ঘিরেবসেছে?
নাকি পেরেশানি জীবনে,বিষম তাড়া?

আয় আবারো হাতে হাতরাখি,
রাখি হৃদয়ে হৃদয়!
হোকনা অবশেষে-
ভুলে যায় সকল ব্যথা,
সুখ পোহাবার আশে।