স্বজনে নির্জনে : সংহিতা মজুমদার

স্বজনে নির্জনে
সংহিতা মজুমদার

পাহাড়ী নির্জন রাস্তার সৌন্দর্য বড়োই মোহময় |
নৈসর্গিক শোভায় পাহাড় যখন রাস্তার সাথে মিশে থাকে,
তখন যেন মনে হয় প্রেমিক তার প্রেয়সীর আঁচলে বাঁধা পড়েছে |
তখন সেই প্রেমিকের জীবন যেন সার্থক হয় |
এমনই এক নির্জন রাস্তা দিয়ে তোমার সাথে হাঁটতে আমার বড়ো ভালো লেগেছিলো |
আমি তোমার উষ্ণ হাতের ওপরে পরম আদর দিয়ে নিজের হাত রেখে যেন সাতরঙা স্বপ্নের দেশে পাড়ি দিয়েছিলাম |
রোদ্র-ছায়ার খেলায় মেঘ আরো নেশালু রূপ নিয়েছিলো,
সম্মোহিত হয়ে দেখেছিলাম দুজনে দূরের পর্বতমালার শান্তরূপ |
এই প্রকৃতি কোনো চাওয়া পাওয়ার হিসাব রাখেনি,
দিয়েছে অপরূপ সৌন্দর্য ঐ পাহাড় কে ঐ নির্জন রাস্তাকে |
আমিও এই প্রকৃতির মতোই তোমাকে ভালো বাসতে চাই,
চাওয়া পাওয়ার হিসাবের বাইরে থাকতে
চাই |
আমি আমার আমিত্বে তোমায় খুঁজতে চাই,
আমার চিন্তায়, মননে, স্বপনে ভালোবাসতে চাই এভাবেই |
আলিঙ্গনরত পাহাড় ও রাস্তার এই মনোহর রূপ তাদের ভালোবাসাকে যেমন গভীরতা দিয়েছে,
তেমনি আমিও রাখতে চাই শুধু তোমায় ঘিরে আমার ভালোবাসা যা অসীম দিগন্তজোড়া ||