যশোরে প্রকাশ্যে প্রাইভেট চালক খুন

নিহত রিপন হোসেন । টাইম ভিশন ২৪

প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর : আজ দুপুর ১ টার দিকে বাঘারপাড়া হাসপাতাল গেট এলাকায় প্রাইভেট ষ্ট্যান্ডে প্রকাশ্য দিবালোকে রিপন হোসেন (৩২) নামে এক প্রাইভেট চালক খুন হয়েছে। এসময়ে আহত হয়েছেন হিরু আহম্মেদ নামে এক ঔষধ ব্যবসায়ি। নিহত রিপন হোসেনবাঘারপাড়ার মহিরন গ্রামের মনিরুল মিস্ত্রীর ছেলে। থানা ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আজ দুপুর ১ টার দিকে বাঘারপাড়া প্রাইভেট ষ্ট্যান্ডে শিমুলের গ্যারেজে মটরসাইকেল মেরামতের জন্য স্ত্রীসহ বরকত নামে এক যুবক আসে। মটরসাইকেল মেরামতের এক
পর্যায়ে পাশেই দাড়িয়ে থাকা বরকতের স্ত্রী পিংকি খাতুনকে ইভটিজিং করে নিহত রিপন। এরপর অদূরে মাইক্রোষ্ট্যান্ডে দাড়িয়ে থাকা রিপনের কাছে যেয়ে বরকত ঘটনা জানতে চেয়ে কোন
কিছু বুঝে ওঠার আগেই কাছে থাকা ছুরি দিয়ে রিপনের বুকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। ঠেকাতে গিয়ে হিরু আহম্মেদ নামে এক ঔষধ ব্যবসায়ির হাতে কোপ লাগে। সাথে সাথে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে বরকতকে ছুরি সহ আটক করে থানায় খবর দিলে বাঘারপাড়া থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক ছুটে এসে বরকত ও তার স্ত্রীকে
ছুরি সহ গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যান। এদিকে চালক রিপনকে আশেপাশের লোকজন দ্রæত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার কৌশিক আশরাফ রিপনকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করেন। যশোর জেনারেল হাসপাতালে পৌছালে চালক রিপন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এখবর বাঘারপাড়া শহরে ছড়িয়ে পড়লে সাথে সাথে শ্রমিক, ব্যবসায়ি, স্থানীয়রাসহ ক্ষোভে ফেটে পড়েন। খুনি বরকতের ফাঁসির দাবীতে রাস্তার উপর টায়ার জ¦ালিয়ে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। এসময় সকল দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। খুনি বরকত (৩০) যশোর মোল্যা পাড়ার মাহফুজুর রহমানের ছেলে ও তার স্ত্রী পিংকি (১৯) বারান্দি পাড়ার রাজু আহম্মেদের মেয়ে। অপর দিকে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ মিছিলের খবর পেয়ে বাঘারপাড়া থানার ওসি সৈয়দ আল-মামুন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে
এসে ঘাতক বরকতের সর্বোচ্চ শাস্তির আশ^াস দিলে অবরোধকারিরা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন। এঘটনায় প্রায় ২ ঘন্টা যান চলাচল ও সকল প্রকার দোকানপাট বন্ধ ছিল। কিন্তু ঔষধ ব্যবসায়ি হিরু আহম্মেদ আহতর ঘটনায় বাঘারপাড়া ঔষধ ব্যবসায়িরা ২৪ ঘন্টা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখেছে । এদিকে নিহত রিপনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এঘটনায় রিপনের পিতা মনিরুল মিস্ত্রী বাদী হয়ে
ঘাতক বরকতের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। বাঘারপাড়া শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত খুনি বরকত ও তার স্ত্রী পিংকি থানা হাজতে আটক রয়েছে।