প্রেমহীন কবিতা : রুম্পা রায়

প্রেমহীন কবিতা
রুম্পা রায়

যে কবিতা পৃথিবীর প্রেমে নিজেকে বিলীন করে দিয়ে
শত শত প্রেমময় ছন্দ ছড়াতো, সেও যেনো আজ
পৃথিবীর এই দুঃসময়ে প্রেমহীন হয়ে উঠেছে।

যে কবিতা তৃষিত মরুর বুকে একবিন্দু বেঁচে থাকার
প্রেরণা যোগাতো, সেও যেনো এই দুঃসময়ে
তার অবিরাম ক্লান্তিহীনতাকে হার মেনে নিয়েছে।

যে কবিতা বৃষ্টিদিনে ঘরবন্দী দশায় ডায়েরির পাতা
ভরিয়ে দিয়ে যেতো হাজারো প্রেমময় ভাবনাতে,
দীর্ঘকালীন এই বন্দী দশায় ডায়েরির পাতায়
আর প্রেম আসেনা।

যে কবিতা ব্যর্থ প্রেমিককে নতুন করে বেঁচে থাকার
স্বপ্ন দেখাতো, সেই স্বপ্নও যেনো আজ
দুঃসময়ের অতলে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

যে কবিতা গান হয়ে কোকিলের কণ্ঠে সুর হয়ে বাজতো,
সেই কোকিলও যেনো আজ সুর হারিয়ে ফেলে
নিজের অস্তিত্বকে গুটিয়ে নিয়েছে।

যে কবিতার প্রতিটি ছন্দে তোমার প্রেমের পরশ
গায়ে মাখতাম, সেই কবিতার পরতে পরতে
আজ তোমার লাসের গন্ধ পাই।

যে কবিতা প্রেমের নানা রঙে পৃথিবীকে ভরিয়ে রাখতো,
সেও আজ বেদনার নীল রঙে গা ভাসিয়ে দিয়ে
অন্যসব রঙের অনুভূতিকে ভুলতে বসেছে প্রায়।

কবিতা আজ প্রেম ভুলে গেছে, ভুলে গেছে প্রেমিককে,
হাজারো অঙ্গাত মৃত্যু মিছিলে –
কবিতা হারিয়ে ফেলেছে তার প্রেম, ভাব,ছন্দকে।