মাসতুল : কাঞ্চন চক্রবর্তী

মাসতুল
কাঞ্চন চক্রবর্তী

অনিয়ম আজ নিয়ম হয়ে
ছকে পড়ে গেছে বাঁধা,
অধুনা কৃষ্ণের বাঁশি ত্যাগে
বঞ্চিতরা তাই রাঁধা।
কূলগুরু রেখে যারা ভবে
দেখ অন্য গুরু ভজে,
তাহার নাই যে অন্য গতি , সে পাপি নরকে মজে।
গন্ডির মাঝে থাকলে সবাই
বাধতো নাযে কোন গোল,
বুদ্ধি বিবেক সবার আছে
তবু করে শোরগোল।
আমি মুখে বলি হরি-হরি
রাতে করি গরু চুরি,
বক ধার্মিক সাধুর বেশে
মারছি বুকে নিত্য ছুরি।
ঈমান খাঁটি রাখতাম যদি
দরকার ছিল পুলিশ,?
বিচারকের কাছে গিয়ে কি
করতো না কেউ নালিশ।
ঈমান গেছে গোল্লায় আজ
নীতি দিয়ে বিসর্জন,
মুখোশের আড়ালে ভন্ডামি
পুণ্য করিনি অর্জন।
তাই পদবীতে কাজ হবে না
সম্বল আমার নেকি,
শিব গড়তে বাঁদর গড়েছি
নিজেকে দিয়েছি ফাঁকি।
নিজের ফাঁকি নিজেই দিয়ে
পরীক্ষায় করেছি ফেল,
এতো কিছু দেখে যে আমার
কবে হবে রে আক্কেল।
ভ্রান্তনীতির মিথ্যার পথ
তাই ছাড়তে যদি পারি,
ন্যায়ের মাসতুল উঠবে জেগে
ফিরবে ঘাটে নিজ তরী।

কাঞ্চন চক্রবর্তী
কালীগঞ্জ ঝিনাইদহ