এক অন্তহীন আকুতি : বুলা দাস

এক অন্তহীন আকুতি
বুলা দাস

“একটি কবিতা লিখো আমার জন্যে”
বলেছিলেন একজন!
এই অনিশ্চিত জীবনে যদি হঠাৎ উপর থেকে
ডাক আসে? যদি কোভিড ১৯ এ মরে যাই?
………বলেছিলেন তিনি !!

বুঝতে পারিনি …..
কতোটা আকুলতা, কতোটা উন্মাদনা ছিলো
তাঁর সেই চাওয়ায়!
আর আমি ছিলাম বদ্ধ উন্মাদ নিজেকে অদৃশ্য জীবাণু থেকে বাঁচানোর চিন্তায়।

আজ হঠাৎ মনে পড়তেই কষ্টে মুচড়ে
উঠলো বুকটা!
আহা! কতদিন হয়ে গেল তাঁর কোন খবরই
নেয়া হয়নি,
নিজ চিন্তায় একটিবার মনেও পড়েনি।
এরই মধ্যে কখন যেন পেরিয়ে গেছে কয়েকটি মাস!

মরিয়া আমি, বহুবার খুঁজেছি মেসেঞ্জারে,
কোন সাড়া নেই তাঁর!
কেউ কী জানেন…..
কেমন আছেন তিনি?
সে যে আমার ভীষণ প্রিয় – এক উদাস বাউল কবি।

” শুধু তাঁকে নিয়েই ” যে আমায়
লিখতে বলেছিলো একটি কবিতা,
সেই চাওয়ায় ছিলো একরাশ ব্যাকুলতা!
মনে পড়ে, খুউউব মনে পড়ে…..

একদিন আমরা নিশ্চয়ই কভিট কে জয় করবো,
অনেক অনেক কাব্য ছন্দে গাঁথবো।
ব্যাকুলতা সব মুঠোয় হবে বন্দী,
অনিচ্ছাকৃত ভুলগুলো নাহয় ক্ষমায় হবে সন্ধি।

বয়রা খুলনা