করোনায় মৃত্যু মিছিলে যোগ হল চট্টগ্রামের আরেক তরুন চিকিৎসক ডা: আরিফ হাসান

এনামুল হক রাশেদী, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: বৈশ্বিক মহামারী করোনার মৃত্যুমিছিলে নির্মমভাবে একের পর এক যোগ হচ্ছে দেশের মেধাবী এক একটি প্রতিভার নাম। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এবার চলে গেলেন চট্টগ্রামের আরেক ফ্রন্টলাইনার যোদ্ধা তরুন সম্ভাবনাময় ডাক্তার আরিফ হাসান।১২ জুন, শুক্রবার রাত ৯ টা ৩৫ মিনিটে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নি:শ্বাষ ত্যাগ করে তিনি স্থায়ীভাবে পাড়ি জমান আর কোনদিন না ফেরার দেশে। ডাক্তার আরিফ হাসান ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৪৯ তম ব্যাচের ছাত্র ছিলেন এবং চট্টগ্রামের পাহাড়তলীতে চেম্বার করতেন তিনি। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের স্বচিপের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আ ম ম মিনহাজুর রহমান।ডাক্তার মিনহাজ আরো জানান, এক সপ্তাহ ধরে ডা: আরিফ জ্বরে ভুগছিলেন। শুক্রবার রাতে শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে প্রথমে তাকে পাঁচলাইশ এলাকার ট্রিটমেন্ট হাসপাতালে নেয়া হয়। ডাক্তার আরিফের অক্সিজেন ল্যাভেল ৬০ এ নেমে আসলে অবস্থার আরও অবনতি হলে সেখান থেকে জরুরী ভিত্তিতে চমেক হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আইসিইউ সাপোর্ট দেওয়ার আগেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা পজেটিভ অবস্থায় রাত সাড়ে ৯টায় তার মৃত্যু হয়।চট্টগ্রাম নগরীর লাভলেইন আবেদীন কলোনিতে ডাক্তার আরিফ পরিবারের সাথে থাকতেন। তার পরিবারের আরও কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত বলে জানা গেছে।ডাক্তার আরিফের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে জাতী আরেকজন সাহসী ফ্রন্টলাইনার তরুন চিকিৎসককে হারাল। তাঁর মৃত্যুতে বন্ধু-বান্ধব স্বজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।