দেব গলাই দড়ি : মহব্বত আলী মন্টু

দেব গলাই দড়ি
মহব্বত আলী মন্টু

ভোলা চাচা বুদ্ধি কাঁচা
যায়না চেনা মুখ,
যাতাকলে ‌‌ চোঁখের‌ জলে
কেঁদে ভাসে বুক।

বউয়ের চাপে গতর কাঁপে
হাতে‌ নিয়ে দড়ি,
রাতের বেলা ঝিঁঝির মেলা
যাচ্ছে তড়িঘড়ি।

বগলে ছাতি হাতে বাতি
মুখোশে মুখ মোড়া,
ধায় মল্ল ‌‌‌ ‌ কাঁধে ভল্ল
আবরণে গা জোড়া।

পথিক শুধাই যাও কোথায়?
আধাঁর রাতে হেন,

বউ বলেছে ঝুলতে গাছে
গলায় দড়ি দিয়ে,
তাই অবেলায় কলা তলায়
যাচ্ছি রশি নিয়ে।

তবে রাতে বাতি হাতে
ভল্ল নিচ্ছো কেন?

তাও বোঝনা! রাত জাননা?
শিয়াল পেলে বাগে,
দংশিলে সাপ পাবোনা মাফ
আঁধার যদি লাগে।

ছাতা তবে কিআর হবে
মুখোশ কেন মুখে ?

বর্ষা‌ এলে ভিজিয়ে দিলে
‌ সর্দি কাশি জ্বরে,
মুখোশ ফেলে বলতে গেলে
করোনা যদি ধরে!

মরবি যবে যা-না তবে
‌‌‌‌ মরগে ঝুলে ধুকে।

এমন ধোকা! আমি বোকা?
বউ যদিও ভাগে,
গলাই দড়ি দিয়েই লড়ি
মরবো না আগে।