অভিশপ্ত শব্দটি : জবাশ্রী দাশ গুপ্তা

অভিশপ্ত শব্দটি
জবাশ্রী দাশ গুপ্তা

না,,আর ছুঁব না, আর চেয়ে ও তাকাব না প্রিয় শব্দটির দিকে,
আমি তাকালেই ঘোর গ্রহণ লাগে দুই পৃথিবী জুড়ে,
আমি ছুঁলেই বাসি ফুলের মত ঝরে পড়ে শত অবহেলা,
আমি বরং মুখ ফিরিয়েই থাকি।
আমার পৃথিবী আপন অক্ষে প্রদক্ষিণ না করে স্থির হয়েই থাকুক।

না,আমি আর বইব না ওই শব্দটির শোক,
ওকে আমি অভিঘাত করব প্রতিনিয়ত,
যেন অসহ্য ব্যথাক্ষরণের তীব্রতায় ফেরারী হয়ে যায়।
আমার পাথেয় কষ্টটাকে যেন সঙ্গ দিতে না চায়,
আমায় আলিঙ্গন করার ইচ্ছে যেন প্রকাশ না করে।

হাসিমুখে যখন আমার অনুভূতিদের আমি স্বেচ্ছাসেবী নির্বাচিত করি,
যখন মায়াবী মনের পরশ বুলাই অনমনীয় পাথরের গায়,
দৃঢ়াবরণ ভুলে অভ্যন্তরের অনুগ্র উপাদানে স্পর্শ করি-ওই শব্দটির প্রেরণায়,
সেই শব্দটিই আবার একটা প্রতিশোধের প্রতিযোগী হয়ে মুহূর্তেই মুখোশ পড়ে প্রতিপক্ষে রূপিত হয়।
আমি ওই শব্দে দেখতে পাই হিংস্রতার কুৎসিত রক্ত চোখ,
ও চোখ যুগল আমায় ভয়ার্ত করে তোলে ভীষণ।

না,আমি আর লিখব না হৃদয়ের কোথাও অভিশপ্ত শব্দ “ভালবাসি”–
তারে এবার হৃদয়ের সিংহাসনচ্যুত করে দিব,
পরাজিত করে দিব তার সমগ্র আধিপত্য,
আমি শূন্য প্রাসাদে, শূন্য সিংহাসনের চির প্রহরী হয়েই কাটিয়ে দিব জীবন রেখার শেষ ক’টা দিন।

জবাশ্রী দাশ গুপ্তা
কবি ও কলামিষ্ট
চট্রগ্রাম।