রায় বাড়ী : সঞ্জয় সরকার

রায় বাড়ী :সঞ্জয় সরকার । টাইম ভিশন ২৪

রায় বাড়ী
সঞ্জয় সরকার

আমি আর কি এমন মানুষ?
মানুষ তো ওরা, রায় বাড়ীর!
শুনেছি ওদের একটি ছেলে ডাক্তার হয়েছে
আরও একজন ডাক্তারি পড়ে,,,,
আরো দু একজন সরকারি চাকরিজীবি আছে বাড়ীর মধ্যে,,,
পুরোদস্তুর ভদ্রলোক বললেই ঠিক হয়!
দালানকোঠায় সাজানো এতোবড় বাড়ী,,
ও বাড়ীর কয়েকজন ছেলে ব্যাবসাকরে অনেক বড় হয়েছে শুনেছি,,,,
সোনার ব্যবসা, আমাদের চোখে সোনা মানে তো স্বপ্ন!
রায় বাড়ীতে একটা মেয়ে আছে,”চন্দ্রাবতী ”
মেয়েটার সাথে আমার প্রেম হয়েছিল,,
এক নয়, দুই নয়, তিন নয়,,চার চারটি বছর,,,
কিন্তু কখনো ছুঁয়ে দেখা হয়নি, ওদের নাকি ছুঁয়ে দেখা যায় না,,,!
চন্দ্রাবতীদের নাকি ছুঁয়ে দেখতে নেই!
তবুও কোথায় যেন কি ছুঁয়ে থাকতাম আমি, সবসময়।
শুনেছি অনেক সাহস করে মেয়েটা আমার কথা তার বাড়ীতে বলেছিল, কিন্তু কেউ মানেনি,,,,
কেন মানবে? আমি কি এমন মানুষ?
মানুষ তো ওরা,রায় বাড়ীর;
স্বপ্ন দেখা আমার মতো মানুষের সাজে না,,
আর রায় বাড়ীর মেয়ের সাথে প্রেম? সেতো ভয়ংকর দুঃস্বপ্ন।
তবুও কোথায়, কেমন করে যেন স্বপ্নের মতো কিছু একটা জেগে ওঠে সমস্ত বুক জুড়ে,,,
সমস্ত পৃথিবী আমার ভেঙে পড়ে, যেমন করে বৈশাখের কালো মেঘ ভেঙে পড়ে ঝড়ো হাওয়ায়,,,,
চোখে জল আসে বৃষ্টি হয়ে,,বুকে পাথর জমে।
মেয়েটা ভার্সিটি পড়ে, এ্যাকাউন্টিং,,,তাই হয়তো জীবনের চাওয়া পাওয়ার হিসেবটা ঠিক বুঝে গেছে
কিন্তু ভালোবাসা বুঝতে পারে নি,,ওর কি দোষ বলো?
ও তো এ্যাকাউন্টিংয়ের স্টুডেন্ট, সাহিত্যের তো নয়,,,
শুনেছি রায় বাড়ীর যে ছেলেটা ডাক্তার হয়েছে, সেও নাকি একটা মেয়ের জন্য পাগল, খুব ভালোবাসে,
কিন্তু মেয়েটা তাকে পাত্তা দেয় না,,,,
বুকের যন্ত্রণায় উন্মাদ হয়ে যায় ডাক্তার ছেলেটি,,,
এমবিবিএস ছেলে, ওর জন্য কি ওটা মানায়?
তবুও ভালোবাসা ওকে উন্মাদ করে ছেড়েছে,,
ছেলেটার জীবন বাঁচাতে বাড়ীর সবাই উঠেপড়ে লেগেছে মেয়েটার সাথে ওকে বিয়ে দেবে বলে, সোনার টুকরো ছেলে বলে কথা,,,
কিন্তু আমার কথা কেউ ভাবেনি
কেউ দেখেনি রাত্রি নামলে একা বন্ধ করে কতটা অশ্রু ঝরে পরে এই চোখে
কেউ ভাবেনি কতটা ঢেউ এই বুকের পাজর ভেঙে নিয়ে যায় প্রতিক্ষণ,
কেউ ভাবেনি, কেউ ভাবে না
কেন ভাববে? আমি কি এমন মানুষ?
মানুষ তো ওরা, রায় বাড়ীর;

সঞ্জয় সরকার, প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ” ঝংকার ” সাহিত্য সংগঠন। কবি ও গল্পকার।