করোনায় আরো এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

টাইম ভিশন ডেস্ক: নভেল করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন পুলিশের আরও এক সম্মুখযোদ্ধা। দেশ ও জাতির কল্যাণে আত্মোৎসর্গকারী এ পুলিশ সদস্য হলেন কনস্টেবল জালাল উদ্দিন খোকা (৪৭)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক পূর্ব বিভাগে কর্মরত ছিলেন। এ নিয়ে করোনায় পুলিশে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৭ জনে। এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন দেড় হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য।

শনিবার (৯ মে) রাতে পুলিশ দফতর থেকে পাঠানো বার্তায় জালাল উদ্দিন খোকার মৃত্যুর তথ্য জানান পুলিশ সদর দফতরের গণমাধ্যম শাখার সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা।

সদর দফতর সূত্রে জানা যায়, জামাল উদ্দিনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় তার করোনা পরীক্ষা করা হয় ২৬ এপ্রিল। পরীক্ষায় তার করোনা ভাইরাস (কভিড-১৯) পজিটিভ আসে। তিনি রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭.১০ মিনিটে তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

জালাল উদ্দিনের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার উড়াহাট গ্রামে। তিনি স্ত্রী, দুই কন্যা এবং এক পুত্রসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। পুলিশের ব্যবস্থাপনায় মরদেহ মরহুমের গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সেখানে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে ধর্মীয় বিধান অনুযায়ী পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হবে।

এর আগে আজ সকালেই ডিএমপির শিল্পাঞ্চল থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্য এনামুলে করোনা উপসর্গ নিয়ে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে মারা যান। তবে তার করোনা পরীক্ষার ফলাফল এখনো পাওয়া যায়নি।

এদিকে করোনা ভাইরাসে পুলিশে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫০০ ছাড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় অর্ধেক ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ- ডিএমপিতে কর্মরত পুলিশ সদস্য।

পিএনএস