সাংবাদিক কমরের মৃত্যু, শোক

jurnalist komor

স্টাফ রিপোর্টার: দৈনিক যশোরের স্টাফ রিপোর্টার কমর আহমেদ আর নেই (ইন্না….রাজিউন)। তিনি শহরের বেজপাড়া মেইন রোডের মৃত আমির আলীর ছেলে ও বণিকবার্তা জেলা প্রতিনিধি আব্দুল কাদেরের ভাই।

বৃহস্পতিবার বিকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মস্তিকে রক্তক্ষরণজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়। তিনি স্ত্রী, দু’সন্তানসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

মৃতের ভাই সাংবাদিক আব্দুল কাদের জানান, দীর্ঘদিন তার ভাই কমর আহমেদ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিলেন। সর্বশেষ মস্তিকে রক্তক্ষরণজনিত কারণে বাড়িতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে তার অবস্থার অবনতি হয়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল সাড়ে চার টায় মেডিসিন ওয়ার্ডে ইন্টার্ণ ডাক্তার সৌরভকুমার দাস তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউজে), যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর (জেইউজে) ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন।

এক বিবৃতিতে যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের (জেইউজে) সভাপতি সাজেদ রহমান, সহ সভাপতি প্রণব দাস, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন, যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম রুবেল, কোষাধ্যক্ষ মারুফ কবীর এবং জেইউজে নির্বাহী সদস্য শফিক সায়ীদ ও জিয়াউল হক এই শোক প্রকাশ করেছেন।

আপর এক বিবৃতিতে যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোর্শেদ আলম মরহুমার রুহের মাগ্ফেরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।
পৃথক এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহকারি মহাসচিব মহিদুল ইসলাম মন্টু ও যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা, দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ারুল কবির নান্টু, উপদেষ্টা বদরুদ্দিন বাবুল এবং উপদেষ্টা একেএম গোলাম সরওয়ার সাংবাদিক নাসিরের মায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেন বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন’র সহ সভাপতি মনোতোষ বসু, যুগ্ম মহাসচিব সাকিরুল কবীর রিটন, নির্বাহী সদস্য নূর ইমাম বাবুল ও গোপীনাথ দাস।

একইসাথে নেতৃবৃন্দ মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।