হরিপুরের কুলিক নদীতে ডুবে প্রাণ গেল অবুঝ শিশুর

মোঃ ফরিয়াদ আলী,ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ভাতুরিয়া গ্রামে মোঃ উসমান গনি(৮), পিতা: মোঃ বকুল, নামে এক শিশুর নদীতে ডুবে প্রাণ গেল। ঘটনাটি ঘটে আজ ৩ ডিসেম্বর দুপুর ১২ টায়। তথ্য সুত্রে জানা যায়, আজ দুপুরে গ্যাস ভর্তি খেলনা মাছ আকৃতির বেলুন নিয়ে খেলা করতে ছিলেন মৃত উসমান, ও তার সহপাঠী মোঃ আরিফ(৮), পিতা: মোঃ কাউওয়াল এবং মোঃ তাওহিদ ইসলাম চাঁদ(৭), পিতা: মোঃ খায়রুল ইসলাম, নামে তিনজন শিশু। এক পর্যায়ে খেলনা বেলুনটি হাত থেকে ছুটে গেলে অবুঝ শিশুরা বেলুনটির পিছু নেয়। পিছু ছুটতে ছুটতে পাশে থাকা কুলিক নদীতে চলে যায়, পরে নদীর পানিতে নেমে পড়ে। পানি গভীরতা বেশি থাকায় শিশু তিনটি পানিতে সামলে উঠতে পারি নি। সেই সময় এলাকার মোঃ সমির উদ্দীন নামে একজন দেখতে পেয়ে দ্রুত পানিতে নেমে শিশুদের কে উপরে তুলে নিয়ে আসে। আরিফ ও তাওহিদ নামের শিশু দুজন বেঁচে গেলেও উসমানের ঘটনা স্থলেই মৃত্যু হয়। তারপরও তিনজন শিশুকেই হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডিইউটিরত ডাক্তার উসমান গনিকে মৃত ঘোষণা করেন। আর বাকি আরিফ ও তাওহিদ কে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয় এবং শিশু দুজন এখন রানীশংকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। এদিকে ছেলেকে মৃত অবস্থায় দেখে শিশুটির পরিবারের লোকজন গভীরভাবে শোক যাপন করতেছেন। ঘটনা স্থলে হরিপুর থানা থেকে পুলিশ এবং তদন্ত করে নিয়ে যায়। শিশুটি দাফন কাফন সম্পন্ন করার দাবি জানিয়েছেন শোকাবহ পরিবারের লোকজন। পরে হরিপুর থানা পুলিশ মৃত উসমানের দাফন কাফন সম্পন্ন করার অনুমতি দেন। আজকে সন্ধ্যা ৬ ঘটিকার সময় শিশুটির জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হবে, পারিবারিক কবর স্থানে।