অপরাধ করে এখন আর কেউ পার পেয়ে যাবে না : বেনাপোলে পুলিশ সুপার

শাহাবুদ্দিন আহমেদ বেনাপোল: বেনাপোলঃ দক্ষ পুলিশ, সমৃদ্ধ দেশ-বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ”এই স্লোগানে বেনাপোলে ওপেন হাউজ ডে পালিত হয়েছে।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১ টার সময় যশোরের শার্শা থানা ও বেনাপোল পোর্ট থানার আয়োজনে পোর্ট থানার সামনে এ হাউজ ডে পালিত হয়েছে।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মামুন খানের সভাপতিত্বে ওপেন হাউজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিপিএম (বার) পিপি এম।

পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার বলেন, মাদক সর্বগ্রাসী। মাদক যদি একবার কোন পরিবারে ঢোকে তাহলে ধ্বংস পরম্পরায়। এই মাদকের ভয়াল গ্রাসে আমরা সবাই কমবেশি জর্জারিত। কারও সন্তান মাদকগ্রস্ত হয়েছে, আর আপনি প্রতিবেশী হয়ে হাসছেন। কিন্তু কালকে যে আপনার পরিবারে মাদক ঢুকবে না, সে কথা কেউ বলতে পারেনা। তাই শুধু প্রশাসন না, সমাজের সকলকে মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক আগেই মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার আহবান জানিয়েছেন। তিনি মাদকের গডফাদার ও মাদক ব্যবসায়ীদের সতর্ক হওয়ার হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।
তিনি আরও বলেন, পুলিশ এখন অনেক বদলিয়েছেন। পুলিশ এখন আর জনগণের নির্যাতন-নিপীড়নের হাতিয়ার না। এক সময় ব্রিটিশ পুলিশ ও পাকিস্তানী পুলিশ সম্পদ রক্ষার হাতিয়ার ছিল। এখন আর না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এখন ডিজিটাল বাংলাদেশ। এখন আর থানায় ধরে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক নির্যাতনের দিন নাই। টেকনোলজি এখন অনেক বদলিয়েছে, কেউ যদি অপরাধ করে তাহলে পুলিশ টেকনোলজির মাধ্যম তাকে ধরে আইনের আওতায় নিয়ে আসবে। কেউ এখন আর অপরাধ করে পার পেয়ে যাবে না। আর যদি কোন পুলিশ অন্যায় করে, তবে তিনি তাকে জানানোর আহবান জানান।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম মঞ্জু, বেনাপোল বন্দরের পরিচালক মনিরুজ্জামান, শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়ণ চন্দ্র পাল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া ফেরদৌস, শার্শা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, শার্শা উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শামসুর রাহমান, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ ও বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি কামাল হোসেন ভূইয়া প্রমূখ।

উক্ত অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সরকারি কর্মচারী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি, বন্দর শ্রমিক ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিতি ছিল।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন যশোরের নাভারন সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরান।