1. news.jessore@gmail.com : admin :
  2. timevision24@gmail.com : Time Vision : মিল্টন খাঁন
  3. gmovi67@gmail.com : টাইম ভিশন : টাইম ভিশন
  4. : greeceman :
  5. : wp_update-WzDVvfuT :
  6. : wpcron95c603b9 :
যশোরে ৪শ’ মেট্রিক টন অবৈধ ভেজাল সার জব্দ কারখানা সিলগালা - Time Vision 24
May 26, 2024, 5:46 am

যশোরে ৪শ’ মেট্রিক টন অবৈধ ভেজাল সার জব্দ কারখানা সিলগালা

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৫, ২০২৩
  • 38 বার
 মধ্যরাতের অভিযানে ভেজাল কারবারিদের মাঝে আতঙ্ক 
এ আর এগ্রো কেমিক্যালসের ৩ গোডাউন সিলড
ওবাইদুল ইসলাম অভি: যশোরে ৪শ’ মেট্রিক টন অবৈধ ভেজাল সার জব্দ কারখানা সিলগালা। যশোর সদর উপজেলার ঘুরুলিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ভেজাল সার তৈরির একটি কারখানা সিলগালা করে দিয়েছে উপজেলা কৃষি বিভাগ। বুধবার (১৩ ডিসেম্বর ) মধ্যরাতে যশোর সদর উপজেলার ঘুরুলিয়া গ্রামের এআর এগ্রো কেমিকেলসে অভিযান পরিচালনা করেন,সার ব্যবস্থাপনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান আলী।
বুধবার রাতের  অভিযানে প্রথমে এআর এগ্রো কেমিক্যালস নামের  সাইনবোর্ড সম্বলিত  একটি বাড়িতে  ভেজাল সার কারখানায় হাতেনাতে ধরাপরে ভেজাল সার তৈরির কারিগররা। তাদের স্বীকারুক্তিতে আরও দুটি ভেজাল সারের গোডাউনের সন্ধান পান অভিযানিক দল।
এরপরে এআর এগ্রো কেমিকেলসের তিনটি গোডাউন সিলগালা করা হয়। সুত্রে জানাগেছে,এআর এগ্রো কেমিক্যালস নামক সার কারখানার মালিক ঘুরুলিয়া গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে রাজু আহমেদ দীর্ঘদিন যাবত ভেজাল সারের বানিজ্য করছে। প্রভাবশালী একটি মহলের ছত্রছায়ায় অবৈদ কারবারের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছে রাজু আহমেদ। সার ব্যবস্থাপনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান আলী সাংবাদিকদের জানান, আমরা জানতে পারি এ আর এগ্রো কেমিকেলস নামক একটি কারখানায় ভেজাল সার উদপাদন করা হয়।
সরজমিননে আমরা তার সত্যতা পেয়ে কারখানা ও দুটি গোডাউন সিলগালা করে দিয়েছি। তখন গোডাউনে থাকা ৪ শ মেট্টিক টন অবৈধ ম্যাগনেসিয়াম সালফেট জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।এদিকে অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়ে যায় ভেজাল সার কারখানার মালিক রাজু আহমদ ও তার ভাই মুন্না। স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, ভেজাল সার কারখানায় মাঝ রাতের হঠাৎ অভিযানে চরম আতঙ্কে রয়েছে অবৈধ কারবারিরা। ভেজাল কারবারিরা আতঙ্কে থাকলেও খুশি হয়েছে সাধারন মানুষ। স্থানীয় সচেতন মহলের দাবি এ অভিযান যেন অভ্যাহত থাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..