ঝিকরগাছার গরিবের ডাক্তার হাবিবুরের মৃত্যু, সাবেক এমপি মনিরের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশ বরেণ্য প্রবীণ চিকিৎসক চৌধুরী হাবিবুর রহমান (৮৫) এফআরসিএস (এডিন) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

ডাক্তার হাবিবুর যশোরের ঝিকরগাছার গ্লোব হাউসের মরহুম হেদায়েত আলী চৌধুরীর বড় ছেলে। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, পুত্র, কন্যা, ভাই, দুই বোনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

প্রখ্যাত এই সার্জন হলি ফ্যামিলি হাসপাতালের চিফ সার্জিক্যাল কনসালটেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আজীবন পরোপকারী এই চিকিৎসক লিম্ফোমা রোগে ভুগছিলেন।

শনিবার বাদ আসর ঢাকার বনানী মসজিদ প্রাঙ্গনে নামাজে জানাজা শেষে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়।

ইংল্যান্ড থেকে লেখাপড়া করে চৌধুরী হাবিবুর রহমান প্রায় ৫০ বছর ধরে ঝিকরগাছার মানুষকে বিনা পয়সায় চিকিৎসাসেবা দেয়ার পাশাপাশি অসংখ্য গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে শিক্ষা বৃত্তি দিয়েছেন। তিনি নিজ এলাকায় গরিবের ডাক্তার নামে পরিচিত।

এদিকে ডাক্তার চৌধুরী হাবিবুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনির।

তাঁকে স্মরণ করে ফেসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসে মনির বলেন, আমাদের পরম আত্মীয় ডা. চৌধুরী হাবিবুর রহমান মামার রোগী ছিলাম আমি ও আমার মা। এইতো তিনি অসুস্থ হওয়ার আগে তাঁর বনানী বাসার চেম্বারে মাকে ও আমাকে চিকিৎসা দিচ্ছেন সেই ছবি স্মৃতি হিসেবে আজ পোস্ট করলাম।

তিনি নীরবে-নিভৃতে অনেকগুলি এতিমখানার খরচ চালাতেন। ধর্মপরায়ণ এই মানুষটি চিকিৎসা বিজ্ঞানের বাইরেও আমার কাছ থেকে দেখা কোরআন, হাদিস ইসলামী শিক্ষায় তাঁর অগাধ পাণ্ডিত্য ছিল।