মনিরামপুরে মনোয়ারা ক্লিনিক বন্ধ করে দিলেন সিভিল সার্জন

নিজস্ব প্রতিবেদক: অনিয়ম-অসংগতি পাওয়ায় মণিরামপুরের মনোয়ারা ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছেন যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন।

(২১ সেপ্টম্বর-২০২১ ইং) মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি অভিযান চালান ওই ক্লিনিকে। এ সময় তিনি বিভিন্ন অনিয়ম, অসংগতি দেখতে পেয়ে ক্লিনিকের যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ করে দেন।
সূত্র মতে, সিভিল সার্জনের অভিযানের সময় ওটিতে উপজেলার মাছনা গ্রামের এনামুল হকের স্ত্রী সেলিনা খাতুন নামে এক গৃহবধূর অপারেশনের কাজ চলছিলো।

 

এসময় সিভিল সার্জন ওটিতে ডিপ্লোমা নার্স বা কোন সার্জন না পাওয়ায় তিনি নিজেই উপস্থিত থেকে ওই গৃহবধূর অপারেশন শেষ করে ওটি সিলগালা করে দেন। এছাড়া ক্লিনিকটিতে ১০টি বেডের পরিবর্তে ১৮টি বেড, ৪ জন নার্স এর কারো ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট নেই। ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ নার্স ও ডাক্তারের কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। অপারেশন থিয়েটারে এনামুল হক তুষার নামে একজন এমবিবিএস ডাক্তার থাকলেও তিনি সার্জিক্যালে পারদর্শী নন এবং তার ওই ক্লিনিকের নিয়োগ পত্রের কোন কাগজ দেখাতে পারেননি ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ।

এসব নানা অনিয়ম-অসংগতির কারণে ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন সাহিনুর সামাদ, সিভিল সার্জন অফিসের ডা. রেহেনেওয়াজ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান, মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শুভ্র রানী দেবনাথ, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. অনুপ কুমার বসু প্রমুখ।