ভারত সরকারকে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠালো বাংলাদেশ সরকার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ভারতে করোনার ভয়াবহতায় সহযোগিতা হিসাবে জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুরে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট দিয়ে ৪টি কাভার্ড ভ্যানে ২৬৭২ কার্টুন ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে।
এসময় কাভার্ড ভ্যানে ক্যাপসুল ও ট্যাবলেট ৮২৪ কার্টুন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ৫০০ কার্টুন ও ইনজেকশন ১৩৪৮ কার্টুন ছিল।
এরমধ্যে, ক্যাপসুল, ট্যাবলেট, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ইনজেকশন, পিপিই সহ মোট ১৮ প্রকারের ওষুধ রয়েছে।

এসেনসিয়াল ড্রাগ কোম্পানি লিঃ এর অফিসার মোঃ আবু তাহের বলেন, ৪টি গাড়িতে প্রায় ২০ কোটি টাকা মূল্যের করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জার রয়েছে।
বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট রবি ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী রবিউল ইসলাম রবি জানান, কাস্টমস ও বন্দরে কাগজপত্রর আনুষ্টানিকতা শেষ করে বেলা ৪ টার সময় ট্রাকগুলো ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশ করে।

এসময় পেট্রাপোল বন্দরে কোলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনের ডেপুটি হাইকমিশন তৌফিক হাসান ও ভারতের কাস্টমসের ডেপুটি কমিশনার শিপ সাগর উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বেনাপোল স্থলবন্দর এর উপপরিচালক আব্দুল জলিল ও বিজিবির আইসিপি ক্যাম্পের সুবেদার আশরাফ আলী সহ ভারতে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বিএসএফ সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, এর আগে গত ৬ মে ১০ হাজার পিস রেমডেসিভির ইনজেকশন ভারত সরকারকে উপহার দেয় বাংলাদেশ সরকার।