ভারতকে আরও ৪ কাভার্ডভ্যান কোভিড-১৯ প্রতিষেধক ঔষধ ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার সামগ্রী উপহার দিলো বাংলাদেশ

শাহাবুদ্দিন আহমেদ, বেনাপোল প্রতিনিধি : এবার বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতকে আরও ৪ কাভার্ডভ্যান কোভিড-১৯ প্রতিষেধক ঔষধ ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার সামগ্রী উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৪ টার সময় দেশের বেনাপোল ও ভারতের পেট্রাপোল রপ্তানী গেটে স্থানীয় সিএন্ডএফ এজেন্ট রবি ইন্টার ন্যাশনালের সত্বাধিকারি রবিউল ইসলাম ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার তৌফিকুর হাসানের হাতে এ উপহার সামগ্রী তুলে দেন।
এর পূর্বেও গত ৬ মে ১০ হাজার পিছ কোভিড-১৯ রিলেটেড ইনজেকশন ভারতকে দেওয়া হয়েছিলো বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কীরষ্ট ভান্ডার কর্মকর্তা আবু তাহের। দীর্ঘ একবছর যাবত বিশ^ব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাস সমগ্র বিশ^কে তাক লাগিয়ে বিশ^বাসীকে ক্ষত-বিক্ষত করার ধারাবাহিকতায় এবার ভারতে বিকট রুপ ধারণ করে অজ¯্র মানুষের প্রাণহানি করায় প্রতিবেশী দেশ হিসেবে বন্ধুত্বের দু’হাত বাড়িয়ে দিয়ে এই ঔষধ ও প্রতিষেধক সামগ্রী প্রেরণ করা হলো। করোনার সংকটকালীন সময় ভারত সরকারের সাথে আমরা কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছি এবং বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

এসময় তিনি আরও জানান, বাংলাদেশ সরকার জনগণের পক্ষ থেকে ভারতের জনগণের জন্য দ্বিতীয় দফায় কোভিট-১৯ মোকাবেলায় ভারত সরকারের প্রতিনিধির হাতে মেডিকেল সরঞ্জাম তুলে দিলাম। এবার ৪ টি কাভার্ডভ্যানে ২৬৭২ বক্স মেডিসিন পাঠানো হয়েছে। যার মধ্যে এ্যান্টিবায়োটিকস, প্যারাসিটামল, ইনজেকশন, বিভিন্ন রকমের হ্যান্ড সানিটাইজারসহ ১৮ ধরণের কোভিড-১৯ রিলেটেড মেডিসি রয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ও পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এগুলো প্রেরণ করেছেন। প্রথম দফায় ৬ মে, ১০ হাজার কোভিড-১৯ রিলেটেড ইনজেকশন প্রেরণ করেছি।

বেনাপোল স্থলবন্দরের পরিচালক আব্দুল জলিল বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ চিকিৎসা সামগ্রী ভারতে পাঠানো হচ্ছে। এখান থেকে যাতে উক্ত সামগ্রী দ্রুত ভারতে পাঠানো যায় সেলক্ষ্যে বেনাপোল বন্দর কর্তৃপক্ষ সর্বদা স্বচেষ্ট ছিলো।

ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার তৌফিকুর হাসান বলেন, ভারতের এই সংকটকালীন সময়ে বাংলাদেশের অবদান দু’দেশের বন্ধুত্বের বন্ধনে আরো সূদৃঢ় হলো।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট রবি ইন্টারন্যাশনালের সত্বাধিকারী রবিউল ইসলাম রবি জানান, কাস্টমস ও বন্দরের কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে মঙ্গলবার বিকেলে কোভিড-১৯ সংশ্লিষ্ঠ ঔষধ ও স্যানিটাইজার সামগ্রী নিয়ে ৪ টি কাভার্ড ভ্যান ভারতে প্রবেশ করেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত হাই কমিশনের কাউন্সিলর রিয়াজুল ইসলাম, দু’দেশের কাস্টমস, পুলিশ, বিজিবি, বিএসএফ কর্মকর্তাসহ স্থানীয় ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।