ঐতিহ্যবাহী ছাবিদ আলী (রহঃ) জামে মসজিদ

মো:মজিবুলহক(জোরারগঞ্জ)মীরসরাই: চট্টগ্রাম জেলা মীরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানার অন্তরগত ৬নং ইছাখালী ইউনিয়নের বহদ্দার গ্রামে (ভূইয়া রোড়) বনুমুহুরী বাড়ির পুর্বপাশে এই মসজিদটি অবস্থিত।

শাহ সূফি হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) এর আস্তানা ছিলো এই পবিত্র ভুমিতে। লোকমুখে এখনো হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) এর অনেক অলৌকিক গঠনার বর্ননা শুনা যায়, দীর্ঘদিন যাবত এখানে বসবাসরত ছিলেন এবং এখানেই হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) যেখানে বসতেন সেই পবিত্র স্থান এখনো সম্মানের সহিত রক্ষণাবেক্ষণ কর রেখেছেন খাদেম মরহুম সফিউল্লাহর উত্তরসুরীরা। দুরদুরান্তের অনেক ভক্ত এখনো আসা যাওয়া করেন দর্শন করেন পবিত্র স্থানটি।
জনশ্রুতি আছেঃ গভীররাতে কোন পথিক রাস্তায় কোন বিপদে পড়লে পবিত্র মনে হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ)কে স্মরন করলে অলৌকিকভাবে তাদের সহযোগীতা করেন হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ)।

হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) এর নামানুসারে এই মসজিদের নামকরণ করা হয়। হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) এর খাদেম সফিউল্লাহ তৎকালীন এখানে মসজিদ নির্মানের সহযোগীতা চাইলে তখন মরহুম জাকির হোসেন ভূঁইয়া ও মরহুম রুহুল আমিন ভূঁইয়া (বনুমহুরী বাড়ী) মসজিদ নির্মানের সার্বিক সহযোগীতা করেন।

একরাতে মসজিদ এর সকল অবকাঠামো তৈরি করে সকালের ভিতর মসজিদের সকল কাজ সম্পন্ন করা হয়, পরবর্তী সময়ে হযরত মাওলানা আবুল বশর নিজামী’র একান্ত সহযোগীতায় প্রানবন্ত হয়ে উঠে হযরত ছাবিদ আলী (রহঃ) জামে মসজিদ। এটি বহদ্দার গ্রাম কেন্দ্রীক মসজিদ হওয়াতে বর্তমানে ঈদের নামাজর জামাতও অনুষ্ঠিত হয় এই মসজিদে।

উক্ত মসজিদ পূর্বে থেকে উন্নয়ন কাজে উল্লেখযোগ্য আর্থিক সহযোগীতা করে আসতেছেন জনাব মহিউদ্দিন মেম্বার (হাফিজ গ্রাম)সহ অনেক ধর্মপ্রাণ মুসলাম। বর্তমানে আর্থিক সঙ্কটে থমকে আছে অত্র মসজিদের বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজ।

উল্যেখ্য, বর্তমান সরকার বিভিন্ন পর্যায়ে মসজিদের জন্য সরকারী অনুদান দিলেও এই মসজিদে সরকারী কোন অনুদান দেওয়া হয় নাই বলে জানানঃ মসজিদ কমিটির সেক্রেটারি মোহাম্মদ আমানউল্লাহ। জনাব, আমান উল্লাহ বলেনঃ এটি একটি ঐতিহ্যবাহী মসজিদ তিনি বিত্তবান, সামর্থবান এবং ধর্মপ্রান সকল মুসলমানদের কাছে অত্র মসজিদে সহযোগীতার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ জানান।

যোগাযোগ:
হাজ্বী মোঃ মোস্তফা
সভাপতি
ছাবিদ আলী (রহঃ) মসজিদ কমিটি।
01854-648436