মাদ্রাসা থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার, ধারনা করা হচ্ছে হত্যা।

টাইম ভিশন ডেস্কঃ কুমিল্লায় পাক পাঞ্জাতন মুজিবীয় সুন্নিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা থেকে সাব্বির হোসেন (৭) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার (১১ এপ্রিল) রাতে মাদরাসার কম্বলের নিচে থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত সাব্বির কুমিল্লা সদর উপজেলার জগন্নাথপুর মন্দির এলাকার মৃত আলমগীর হোসেনের ছেলে। সে তার মায়ের সঙ্গে নগরের সংরাইশ এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থাকত।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, শিশুর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে মাদরাসার দায়িত্বরত শিক্ষকরা বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন।

শিশুর মা ফুলমতি বেগম জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর তিনি মানুষের বাসায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। ছেলে সাব্বিরকে অনেক আশা নিয়ে পাক পাঞ্জাতন মুজিবীয় সুন্নিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার ভর্তি করেছেন।

রবিবার সন্ধ্যায় সন্তানের জন্য খাবার নিয়ে মাদরাসায় যান ফুলমতি। তবে মাদরাসার হুজুর তাকে জানান- সাব্বির ছুটি নিয়ে বাড়ি গেছেন। তখন ফুলমতি বেগম জানান- তার সন্তান বাড়ি যায়নি। পরে তিনি মাদরাসার লেপ-তোষকের স্তুপের নিচে সন্তানের মরদেহ দেখতে পান এবং হাউমাউ করে কান্নাকাটি করতে থাকেন।এসময় স্থানীয়রা ও-ই মাদ্রাসায় গিয়ে ঘটনাটি জানতে পেরে পুলিশকে খবর দেয়।

কুমিল্লার কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই শিশুর মরদেহ কম্বলের নিচ থেকে উদ্ধার করে। প্রাথমিকভাবে বিষয়টি হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।