যশোর প্রতিনিধি: যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ শিশু নিহত ও ১ জন আহত হয়েছে। নিহতরা হচ্ছে যশোর সদরের দিহি গ্রামের সুমন হোসেনের ছেলে শিহাব হোসেন (১০) ও মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জের জালাল গাজীর মেয়ে শাকিলা খাতুন (৭)।

গুরুতর আহত শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে প্রেরণ করা হয়েছে।

মনিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা বাওড়ে ছুটির দিনে মেয়েকে ঘুরতে নিয়ে গিয়ে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার দুপুর দেড়টার সময় মটরসাইকেলের সাথে পিকআপের সংঘর্ষের মেয়েকে হারিয়েছে পিতা। নিহত শিশুটির নাম শাকিলা খাতুন, তৃতীয় শ্রেণী থেকে সদ্য চতুর্থ শ্রেণীতে উঠেছে। নিহত শিশুর পিতা জালাল গাজীও আহত অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি। জালাল গাজী খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার সোনাতনকাটি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি মনিরামপুরের রাজগঞ্জে ইটভাটায় কাজ করেন, সেখানেই অস্থায়ী ভাবে থাকেন।

এদিকে দুপুর আড়াইটার সময় যশোর-ঝিনাহদাহ মহাসড়কের শানতলা বাজারে ট্রাকের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী শিশু নিহত হয়েছে। নিহত শিশুটির নাম শিহাব হোসেন। শিশুটি যশোর সদরের দিহি গ্রামের সুমন হোসেনের ছেলে। শিহাব হোসেন শানতলা বাজারের তালেব ফার্নিচারের কর্মচারী, দুপুরে বাড়িতে সাইকেলে খেতে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

একই দিন বিকাল সাড়ে পাঁচটার সময় যশোরের চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকায় পিতার সাথে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় ট্রাক ধাক্কা দিলে গুরুতর আহত হয় শিশু সোহানা খাতুন। সে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শেখপুর গ্রামের মোসলেম হোসেনের মেয়ে।আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্যে প্রেরণ করা হয়েছে। চাঁচড়া চেকপোস্টে গাড়ি পরিবর্তন করে ঝিনাইদহের কালিগঞ্জে যাওয়ার জন্যে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। মোসলেম হোসেন ইটভাটায় কাজ করার উদ্দেশ্যে কালিগঞ্জে যাচ্ছিলেন।

নিহত দুই শিশু শাকিলা খাতুন ও শিহাব হোসেনের লাশ যশোর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়। দুর্ঘটনার জন্যে দায়ী কোন গাড়ীকে চিহিৃত বা আটক করা সম্ভব হয়নি।